প্রধানমন্ত্রীর যে বক্তব্যে নীরবে চোখ মুছলেন নওফেল

  • ২৫-ফেব্রুয়ারী-২০১৯ ০৮:০২ পূর্বাহ্ণ
Ads

 

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

বাংলাদেশের প্রথম সড়ক সুড়ঙ্গপথ ‌‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল’ নির্মাণের কাজে চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী খুবই আনন্দিত হতেন বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, বেঁচে থাকলে বাংলাদেশের প্রথম সড়ক সুড়ঙ্গপথ ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল’ নির্মাণের কাজ দেখে খুবই আনন্দিত হতেন চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী। নদীর ওপর ব্রিজ করলে নদীর ক্ষতি হবে। তাই গণমানুষের এই নেতা কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণের দাবিতে আন্দোলনও করেছিলেন। আজ কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণের কাজ শুরু হচ্ছে। তিনি থাকলে অত্যন্ত আনন্দিত হতেন। বাংলাদেশের অনেক আন্দোলন সংগ্রামে তার অবদান রয়েছে। আজ আমি তাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি।

প্রধানমন্ত্রীর মুখে বাবার এমন প্রশংসা শুনে চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি শিক্ষা উপমন্ত্রী মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। এ সময় নীরবে তাকে চোখ মুছতে দেখা যায়।

রোববার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রামে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল’ এর বোরিং কার্যক্রম এবং শহরের লালখান বাজার হতে শাহ্ আমানত বিমানবন্দর পর্যন্ত এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ কাজের উদ্বোধন শেষে সুধী সমাবেশে এ দৃশ্যের অবতারণা হয়। পতেঙ্গার রিং রোডে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

দেশের অন্যান্য স্থানের মতো চট্টগ্রামের উন্নয়নেও কাজ করছে সরকার উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, চট্টগ্রাম শুধু বাণিজ্যিক শহরই নয়, এটি অপরূপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রথম টানেল হচ্ছে চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে। ২০১০ সালে এই টানেল নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিলাম। এই টানেল নির্মাণ হলে যোগাযোগের শুধু উন্নয়ন হবে না, ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিল্পায়নেরও উন্নয়ন হবে।

তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনে বাংলাদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। সেই ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য এখনই আমরা বিশেষ পরিকল্পনা নিয়েছি। সেই সঙ্গে আমাদের উন্নয়ন পরিকল্পনাটা এমনভাবে নিয়েছি, যাতে সেই ক্ষতির হাত থেকে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষজন রক্ষা পায়। এসব দিকে লক্ষ রেখেই আমাদের ব্যাপক উন্নয়নের কাজ চলছে।

সুধী সমাবেশে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, গৃহায়ন ও গণপুর্তমন্ত্রী স ম রেজাউল করিম, ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রামের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন,প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে সচিব সাজ্জাদুল হাসান, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আমিনুল ইসলাম, বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সকালে পতেঙ্গায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল এবং লালখান বাজারে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধন উপলক্ষে চট্টগ্রাম যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Ads
Ads