১৫ মিনিট শেখ হাসিনার সঙ্গে যা বললেন সুলতান মনসুর

  • ৩১-জানুয়ারী-২০১৯ ০৫:২৬ অপরাহ্ন
Ads

ভোরের পাতা ডেস্ক
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের পরই বদলে গেলেন সুলতান মোহাম্মদ মনসুর। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেন। তিনি ঐক্যফ্রন্টের একজন প্রার্থী হিসেবে মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে নির্বাচনে বিজয়ী হন। নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর থেকেই আওয়ামী লীগের বিভিন্ন মহলের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগের খবর পাওয়া যায়। 

সর্বশেষ জানা গেছে যে, গত সপ্তাহে কোন একরাতে তিনি গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দীর্ঘ ১৫ মিনিট একান্ত আলাপ হয়েছে। আলোচনার পরই সুলতান মোহাম্মদ মনসুর বদলে যান। সুলতান মোহাম্মদ মনসুর বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে বলছেন, তিনি কখনো আওয়ামী লীগ ত্যাগ করেননি। তিনি এটাও দাবি করেছেন,‘ গণফোরাম বা বিএনপির সদস্য নন তিনি।’ তিনি এখনও আওয়ামী লীগেরই সদস্য আছেন। আজ গণফোরামের ৫ম জাতীয় কাউন্সিলের প্রস্তুতি সভাতেও তিনি উপস্থিত ছিলেন না। গুঞ্জন রয়েছে, তিনি আওয়ামী লীগেও ফিরে যেতে পারেন। এ ব্যাপারে আইনগত বিভিন্ন দিকগুলো খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যেহেতু তিনি ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেছেন, সেহেতু তিনি আবার নতুনকরে আওয়ামী লীগে যোগ দিতে পারবেন কিনা বা সেটা ফ্লোর পসিব হবে কিনা সে বিষয়টির আইনগত বৈধতা যাচাই বাচাই করা হচ্ছে। তবে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একজন ঘনিষ্ঠ ছাত্রনেতা ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে ডাকসুর ভিপি হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছিলেন। তিনি ১৯৬৭ সালের পরে প্রথম ছাত্রলীগের ডাকসুর ভিপি হিসেবে নির্বাচিত হন। কিন্তু ২০০১ সালে তিনি সংস্কারপন্থী হয়ে যাওয়ার পর তার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্পর্কের অবনতি ঘটে। এরপরে তিনি আওয়ামী লীগের কার্যক্রমে নিষ্ক্রিয় হয়ে পরেন। ২০০৮ সালে তাকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। এরপরে তিনি সরকারের একজন সমলোচক হয়ে উঠেন। কিন্তু নির্বাচনে বিজয়ের পর সুলতান মোহাম্মদ মনসুর সরকারের সঙ্গে নিজেই ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করেন। 

একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে যে, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠ বৈঠক হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পরই সুলতান মোহাম্মদ মনসুর বদলে গেছেন।

বিভিন্ন সূত্র বলছে যে, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পরই সুলতান মোহাম্মদ মনসুর অত্যান্ত আপ্লূত হয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর ব্যাবহারে তিনি মুগ্ধ হয়েছেন। তার ঘনিষ্ঠদের তিনি বলেছেন, ‘কে কি বললো সেটা কোন বিষয় নয়। তিনি সংসদে যাবেন এটা নিশ্চিত। তবে কবে যাবে কিংবা কিভাবে যাবেন তার আইনগত বিষয়গুলো পর্যালোচনা করার পরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

সুলতান মোহাম্মদ মনসুরের ঘনিষ্ঠরা আরও বলেন,‘ তার সংসদে যাওয়া সময়ের ব্যাপার মাত্র। তার সংসদে যাওয়ার পর যেন কোন আইনগত জটিলতা না হয়। তার আগেই বিষয়গুলো পরীক্ষা নীরিক্ষা হচ্ছে।’

Ads
Ads