বাবা-মাকে শিক্ষার্থীর সামনে অপমান বাজে দৃষ্টান্ত: হাইকোর্ট

  • ৪-Dec-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

স্কুল থেকে ছাড়পত্র (টিসি) দেয়ায় এবং তার সামনে বাবা-মাকে অপমান করায় ভিকারুননিসা নূন স্কুলের মূল শাখার ছাত্রী অরিত্রি অধিকারীর (১৫) আত্মহত্যার ঘটনাকে হৃদয় বিদারক ও শিক্ষার্থীর সামনে বাবা-মাকে অপমানের ঘটনাকে বাজে দৃষ্টান্ত বলে মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (০৪ ডিসেম্বর) বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন।

এদিন পত্রিকায় প্রকাশিত খবরটি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সাইয়েদুল হক সুমন বিষয়টি আদালতের নজরে আনেন।

এসময় আদালত বলেন, ‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কারণে যদি এ ধরনের ঘটনা ঘটে তাহলে তা ভয়ঙ্কর হৃদয় বিদারক ঘটনা। শিক্ষার্থীর সামনে বাবা-মাকে অপমানের ঘটনা খুবই বাজে রকমের দৃষ্টান্ত।’

আদালত আইনজীবীর উদ্দেশ্য বলেন, ‘আপনি পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন সংযুক্ত করে রিট নিয়ে আসেন। আমরা বিষয়টি দেখব।’

প্রসঙ্গত, মোবাইল ফোনের মাধ্যমে নকলের অভিযোগ তুলে বাবা-মাকে ডেকে অপমান ও টিসি দেয়ার কথা বলায় রাজধানীর শান্তিনগরে নবম শ্রেণীর ছাত্রী অরিত্রি আত্মহত্যা করেন। 

স্কুলের অধ্যক্ষ অরিত্রির বাবা-মাকে ডেকে মেয়ের সামনেই অপমান করে বলেন, ‘সিদ্ধান্ত হয়েছে অরিত্রিকে নকলের অভিযোগে প্রতিষ্ঠান থেকে বের করে দেয়া হবে।’

এ অপমান সইতে না পেরে বাসায় এসে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় অরিত্রি। আত্মহত্যার কিছুক্ষণ আগে সে তার মাকে জানায়, ‘মা এ লজ্জা নিয়ে বাঁচতে চাই না।’ তার ছোট বোনও একই স্কুলে পড়ে।

পুলিশ ও পরিবারের তথ্য অনুযায়ী, সোমবার বেলা সাড়ে ১২টায় রাজধানীর শান্তিনগরে সাততলা ভবনের সপ্তম তলায় নিজ ফ্ল্যাটের ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় অরিত্রির মরদেহ পাওয়া যায়।

 

/কে 

Ads
Ads