ভূমি মন্ত্রণালয়ের সবাইকে সম্পদের হিসাব দিতে হবে: ভূমিমন্ত্রী

  • ১২-জানুয়ারী-২০১৯ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

ভূমি মন্ত্রণালয়সহ সব ভূমি অফিসের কর্মকর্তাদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির হিসাব দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এ হিসাব জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

শনিবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তার মন্ত্রণালয়ে কোনও ধরনের সমস্যা থাকলে তা দ্রুত সমাধানের কথা বলেন তিনি।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মেডিকেল এডুকেশন শাখার এক হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার বিপুল সম্পদের খোঁজ পাওয়ার পর ভূমিমন্ত্রীর দিক থেকে এমন নির্দেশনা এলো। ওই কর্মকর্তার নাম মো. আবজাল হোসেন। আবজাল দম্পতির নামে রাজধানীর উত্তরায় ১৩ নম্বর সেক্টরের ১১ নম্বর রোডে তিনটি পাঁচতলা বাড়ি, ১৬ নম্বর রোডে পাঁচতলা বাড়ি, উত্তরার ১১ নম্বর রোডে একটি প্লট (প্লট নম্বর ৪৯) এবং ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় ও ফরিদপুরে প্রচুর সম্পদ ছাড়াও অস্ট্রেলিয়াতেও তাদের বাড়ি আছে বলে জেনেছে দুদক।

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেন, ‘আবারও আমাকে ভূমি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। পূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব যখন পেয়েছি, সেবার মান আরও এগিয়ে নিতে কাজ করে যাব। আগামী তিনমাসের মধ্যে মন্ত্রণালয়ের সবকিছু ঠিক করার অঙ্গীকার করছি। কর্মকর্তাদের সাহস দিতে চাই। মাঠ পর্যায়ে হাত দিচ্ছি। উপজেলা, ইউনিয়নের সব ভূমি অফিসকে সিসিটিভির আওতায় নিয়ে আসবো। ভয়েস রেকর্ডিংয়ের সুযোগ রাখবো বিভিন্ন পয়েন্টে। দুর্নীতির ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতিতে থাকবো।’

শিগগিরই বিভিন্ন ভূমি অফিসে সারপ্রাইজ ভিজিট শুরু করবেন জানিয়ে ভূমিমন্ত্রী বলেন, ‘ভূমি অধিগ্রহণের নোটিশ ইস্যুর পর মামলা হয়। ভূমি অফিসের নিচু শ্রেণির কর্মীরা এর সঙ্গে জড়িত থাকে। তাই নোটিশ ইস্যুর পর মামলা টিকবে না এমন একটি সিস্টেম বের করছি। সোজা হিসাব। এ রকম নিয়ম করা হবে।’

‘আমি মনে করি, যারা অভ্যাস ফেলতে পারবে না তাদের কেটে পড়া উচিত। আমি এসেছি সম্মানের জন্য। দুর্নীতি যেদিন স্পর্শ করবে সেদিন হবে আমার শেষ দিন। যে কেউ প্রশ্ন করলে জবাব দিতে বাধ্য থাকবো। আমি সবার সেবক হিসেবে থাকতে চাই,’ বলেন ভূমিমন্ত্রী।

 

/কে 

Ads
Ads