পুলিশকে সাইবার যুদ্ধ মোকাবেলা করার জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • ৪-Oct-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

পুলিশকে সাইবার যুদ্ধ মোকাবেলা করার জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

বৃহস্পতিবার (০৪ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর বাণিজ্য মেলার মাঠে জাতীয় উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল সাংবাদিকেদের এ কথা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায় ১০ অক্টোবর ঘোষণা হবে আমরা আশা করছি। ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে হত্যা করা হয়েছিল। ঠিক একই ধরনের বীভৎস হত্যাকাণ্ড যা আমরা আগে কোনও দিন লক্ষ্য করিনি; সেটা ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট দেখলাম। একের পর এক হত্যাকাণ্ডগুলো ঘটানো হয়েছে, সবগুলোর যোগসূত্র একই। এগুলোর সব পরিকল্পনা বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শেষ সদস্যকে হত্যা করা। ২১ আগস্ট মামলার রায় হতে যাচ্ছে। সেদিন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আহত হলেও আমরা আইভি রহমানসহ ২২ জনকে হারিয়েছি।

তিনি বলেন, রায় ঘিরে কোনও কিছু হবে না। জনগণ এই রায়ের কার্যকরিতা দেখতে চায়। অনেকে মনে করছে শান্তি-শৃঙ্খলার অবনতি হবে কিন্তু আমি মনে করি এগুলো কোনও কিছুই হবে না। সাধারণ মানুষ জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ পছন্দ করে না। যারা এগুলো করে তাদেরকে ধিক্কার দেয় মানুষ। এই কারণে আমরা জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ কঠোর হস্তে নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়েছি।’

পুলিশের পক্ষ থেকে সাইবার ইউনিট গঠন নিয়ে মন্ত্রী বলেন, এরই মধ্যে আমরা একটা ছোটখাটো সাইবার ইউনিট গঠন করেছি। যে অপরাধগুলো আসবে বা এখনই আসা শুরু হয়েছে সেগুলোকে মোকাবেলা করার জন্য পুলিশের সক্ষমতা বাড়ানো হচ্ছে। পুলিশকে সাইবার যুদ্ধ মোকাবেলা করার জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে। আমরা শুধু সাইবার ক্রাইম না, যে কোনও বিশৃঙ্খলা প্রতিরোধে প্রস্তুত রয়েছি। সাইবার ক্রাইমকে শক্তিশালী করার অন্যতম কারণ গুজব ছড়ানো বন্ধ করা। মাঝে মাঝে গুজব ছড়িয়ে দিয়ে আমাদের ছোট-ছোট সোনামনিদেরও রাস্তায় নিয়ে আসে; সেগুলো আমরা লক্ষ্য রাখছি।

প্রসঙ্গত, রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের জনসভায় গ্রেনেড হামলা মামলার আসামিদের মধ্যে আছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, বিএনপি নেতা শিক্ষা উপমন্ত্রী আবদুস সালাম পিণ্টু ,খালেদা জিয়ার ভাগ্নে সাবেক সেনা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম ডিউটি। এসব আসামিদের মৃত্যুদণ্ড চেয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ। চৌদ্দ বছর আগে বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে অন্যতম নৃশংস এই মামলার রায় ঘোষণা হবে আগামী ১০ অক্টোবর বুধবার। এই রায়কে ঘিরে বিএনপিতে উদ্বেগ স্পষ্ট। এরই মধ্যে দলটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারেক রহমানকে ফাঁসানোর চেষ্টা করলে দেশবাসী তা মেনে নেবে না।

/ই

Ads
Ads