ঘোষণার পরও ঢাকার রাস্তায় লেগুনা, তবে কম

  • ৫-Sep-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: নিজস্ব প্রতিবেদক ::

‘রুট পারমিট নেই, ঢাকার রাস্তায় কোনো লেগুনা চলতে দেওয়া হবে না’ গত মঙ্গলবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার এই ঘোষণার পর থেকে রাজধানীর প্রধান প্রধান সড়কগুলোতে দুই একটি লেগুনা চলাচল করতে দেখা গেলেও কমে গেছে লেগুনার সংখ্যা।

বুধবার (০৫ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে ঢাকার অল্প কিছু রুট ছাড়া বেশিরভাগ রুটের লেগুনা স্ট্যান্ডে গিয়ে কোনো লেগুনা দেখা যায়নি।

ফলে যাত্রীদের গন্তব্যে যেতে হয়েছে বিকল্প পথে। রাজধানীর সাতরাস্তা থেকে বাড্ডা রুটের কোনো লেগুলা দেখা যায়নি। এই রুটের লেগুনাগুলো প্রতিদিন মগবাজার চৌরাস্তা থেকে ইউটার্ন নিয়ে মোড়ে অবস্থান নিয়ে একটি অস্থায়ী স্ট্যান্ড তৈরি করে যাত্রী তুলতো। তবে সকাল থেকে সেখানে কোনো লেগুনা দেখা যায়নি।

যাত্রাবাড়ী গিয়ে সরেজমিনে দেখা যায় ভোর থেকে চিটাগং রোড থেকে নিউমার্কেট রুটে কোনো লেগুনা চলাচল করতে দেখা যায়নি। মিরপুর থেকে মহাখালী রুটে কোনো লেগুনা চলাচল করতে দেখা যায়নি। তবে সকালে শেওড়াপাড়া থেকে ইব্রাহিমপুর-পুলপাড়ে (কচুক্ষেত) কয়েকটি লেগুনা চলেছে। তবে এগুলো নিয়মিত সড়কের ভেতরের গলি দিয়ে চলাচল করে। গুলিস্তান থেকে নবাবগঞ্জ সিকশন ও চকবাজার রুটেও কয়েকটি লেগুনা চলাচল করেছে বলে দেখা গেছে। মোহাম্মদপুর থেকে বাড্ডা, ফার্মগেট ও শিয়া মসজিদ থেকে বাড্ডা রুটে কোনো লেগুনা চলাচল করছে না। এ ছাড়াও ঝিগাতলা থেকে মিরপুর-১ নম্বর রুটেও ছিল না কোনো লেগুনা।

এদিকে সকাল থেকে লেগুনা না থাকায় অনেকেই বিপাকে পড়েছেন, তবে সড়কের শৃঙ্খলা ফেরাতে তারা সবাই পুলিশের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানান।

কাউসার হোসেন নামে এক যাত্রী জানান, আমি প্রতিদিন মিরপুরের দারুস সালাম মহাখালীতে লেগুনা চড়ে আসি। আজ এই রুটে কোনো লেগুনা নেই। অফিস যেতে বিলম্ব হলেও যেহেতু প্রধান প্রধান সড়কে তাদের চলাচলের রুট পারমিট নেই সেহেতু তাদের চলতে না দেয়ার সিদ্ধান্তকে আমি সাধুবাদ জানাই।

বাংলাদেশ হালকা যানবাহন চালক শ্রমিক ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি বোরহান হালদার জসিম ভোরের পাতাকে বলেন, গত মঙ্গলবার ডিএমপি কমিশনারের বক্তব্যের পর রুট পারমিট ও অধিকাংশ চালকদের লাইসেন্স না থাকায় আজকের জন্য আমরা লেগুনা বন্ধ রেখেছি।

তিনি আরো বলেন, আমরা এইসব হালকা পরিবহন দিয়ে মানুষের সেবা করি। কিন্তু আমাদেরও তো পেট আছে। আমরা চাই, সরকার যেন আমাদের শ্রমিকদের বিশেষ মানবিক দিক বিবেচনা করে গুরুত্বপূর্ন রুট ব্যধিত অন্যান্য সকল রুটে চলাচল করার জন্য পারমিট দেয়া হয় বলে অনুরোধ জানান।

এদিকে গত মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকার প্রধান প্রধান সড়কে লেগুনা চলাচলের বিষয়ে ডিএমপি কমিশনার বলেন, ঢাকা মহানগরীতে কোনো ধরণের লেগুনা চলবে না। কারণ সড়কে বিশৃঙ্খলা ও দুর্ঘটনার কারণ এই লেগুনা। এ ছাড়া নগরীর প্রধান প্রধান সড়কে এগুলো চলাচলের কোনো রুট পারমিট নেই। ঢাকা মহানগরীর ভেতরে কোনোভাবেই এগুলো চলতে দেয়া হবে না। এসব মহানগরের বাইরের সড়কে চলবে।

ডিএমপি কমিশনারের এ ঘোষণার পরপরই রাজধানীর প্রধান সড়কগুলো থেকে লেগুনার সংখ্যা কমতে থাকে।


অনলাইন/কে 

Ads
Ads