যত কোটি টাকার বিনিময়ে জামায়াত নেতাদের ‘বিএনপির টিকেট’ দিচ্ছেন তারেক!

  • ২৬-Nov-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান ৬ কোটি টাকার বিনিময়ে যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানদের বিএনপির নমিনেশনের ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগে বলা হয়, ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে অর্থের লোভে জামায়াত নেতাদের সন্তানদের একাদশ নির্বাচনে বিএনপির টিকেটের ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন তারেক রহমান।

ইতিমধ্যে, শীর্ষ যুদ্ধাপরাধী সাঈদীর অনুপস্থিতিতে পিরোজপুর-১ আসন থেকে তারই মেজপুত্র শামীম সাঈদীকে নির্বাচনে সমর্থন দেয় বিএনপি। পাশাপাশি পাবনা-১ (সাঁথিয়া-বেড়া আংশিক) আসনে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের সাবেক আমীর মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর ছেলে ব্যারিস্টার নাজিব মোমেনকেও নমিনেশন প্রদানের কথা পুরোপুরি পাকাপোক্ত হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন তারেক রহমানের আস্থাভাজন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রিজভী বলেন, মনোনয়ন বাণিজ্য তেমন কোন বড় বিষয় নয়। প্রতিটি দলে কম বেশি হয়েই থাকে। এসময় তারেক রহমান যদি এমনটি করে থাকেন, তবে তো এখানে দোষের কিছু নেই। তাছাড়া তিনি লন্ডনে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। জামায়াতকে আমরা কখনোই দল থেকে বের করিনি, ফলে তার ছেলেকে আমরা মনোনয়ন দিতেই পারি।

এদিকে যুদ্ধাপরাধীর সন্তানদের মনোনয়ন দেয়ার কারণে বিএনপির নমিনেশন বঞ্চিত একাধিক নেতাকর্মী ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বিএনপি যদি এখনো একাত্তরের ঘাতকদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে কাজ করতে চায় তবে সেটি হবে একটি জাতির জন্য দুঃখজনক। একটি দেশ যেখানে স্বাধীনতার স্বপক্ষে এগিয়ে যাবার কথা, সেখানে এখনো তারেক রহমান যদি টাকার লোভে পড়ে রাজাকারের বাচ্চাদের নমিনেশন দেয়, তবে দেশ স্বাধীন হয়ে কী লাভ হলো। বিএনপির জন্য এতো বছর নিজেকে নিবেদিত করে কী লাভ হলো, যেখানে ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে টাকার কাছেই বিক্রি হয়ে যান একটি দলের ভাইস চেয়ারম্যান।

এ প্রসঙ্গে রাজনৈতিক বিশ্লেষক বিভুরঞ্জন সরকার বলেন, এক যুগ ক্ষমতার বাইরে থাকার পরেও তারেক রহমান যদি টাকার কাছে বিক্রি হয়ে দেশের ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে দেশবিরোধী শক্তির উত্তরসূরিদের নমিনেশন দেন, তবে জনগণের ভোট পাবে না। সামান্য কয়েকটি টাকার লোভ যারা সামলাতে পারে না, তারা ক্ষমতায় আসার পর আবারো দুর্নীতিতে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হবে না, তার নিশ্চয়তা কেউ দিতে পারবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

Ads
Ads