মনোনয়নপ্রত্যাশী ৫ নেতাসহ ৫২৯ জন গ্রেফতার, ইসিতে বিএনপির চিঠি

  • ২১-Nov-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী পাঁচজন নেতাকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এর মধ্যে একজন মনোনয়ন প্রত্যাশীর খোঁজ এখনও পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ বিএনপির। এছাড়াও তফসিল ঘোষণার পর নতুন ৫৫ মামলায় ৫২৯ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতারের অভিযোগ করেছে দলটি।

বুধবার (২১ নভেম্বর) দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মামলা ও তথ্য সংরক্ষণ কর্মকর্তা মো. সালাহ উদ্দিন খানের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধি দলটি প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) বরাবর এ সংক্রান্ত একটি তালিকা জমা দেয়।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সই করা এই চিঠিতে আটক নেতা-কর্মীদের অবিলম্বে ছেড়ে দেয়ার ব্যবস্থা নিতে ইসির প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

বিএনপির চিঠি অনুযায়ী, আটক পাঁচ নেতা হলেন ইব্রাহীম হোসেন (বাগেরহাট-৪), আনিসুজ্জামান খান (গাইবান্ধা-২), আনোয়ারুল হক (নেত্রকোনা-২), শেখ রবিউল আলম (ঢাকা-১০) ও আবু বক্কর (যশোর-৬)।

দলটির তরফে আগে জানানো হয়েছিল, ৮ নভেম্বর তফসিল ঘোষণার পর একাধিক মামলায় দলটির ৫২৯ জন নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে। যাদের অনেকেই মনোনয়নপ্রত্যাশী।

ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, জাতীয় নির্বাচনে মনোনয়নপ্রত্যাশী নেতাদেরও গ্রেফতার ও আটকে রাখছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। এ পর্যন্ত মনোনয়নপ্রত্যাশী পাঁচজনকে আটকের পর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। মনোনয়নপ্রত্যাশী একজনকে এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, বরং পুলিশ বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রেখেছে। আটকের পর তাদের আদালতে হাজির করা হচ্ছে। কাউকে আবার আটকের পর গুম করে রেখেছে।

বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতার অভিযান অবিলম্বে বন্ধের ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব।

তিনি বলেছেন, বাড়িতে গিয়ে, রাস্তায় চলাচলরত অবস্থায় এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হানা দিয়ে নেতা-কর্মীদের আটক করা হচ্ছে।

ফখরুল বলেন, তফসিল ঘোষণার পর আটক নেতাদের তালিকা ইসিতে দুবার সরবরাহ করা সত্ত্বেও তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এ অবস্থায় ইসি আদৌ সুষ্ঠু নির্বাচন করতে পারবে কি না, তা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

 

/কে 

Ads
Ads