শেকৃবিতে ভুট্টার  নতুন হাইব্রিড জাত উদ্ভাবন

  • ১৩-Aug-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

প্রায় পাঁচ বছর গবেষণা করার পর ভুট্টার দুইটি নতুন হাইব্রিড জাত উদ্ভাবন করেছেন শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষিতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আব্দুল্লাহেল বাকী।  

সাউ হাইব্রিড ভুট্টা-১ ও  সাউ হাইব্রিড ভুট্টা-২ নামে জাত দু’টির নিবন্ধন দিয়েছে জাতীয় বীজ বোর্ড। নীল সাগর বীজ কোম্পানির গবেষণা বিভাগের সহযোগিতায় উদ্ভাবিত জাত দু’টি রবি ও খরিপ-১ মৌসুমে চাষ করা যাবে। 

গবেষক ড. আব্দুল্লাহেল বাকী বলেন, উদ্ভাবিত জাত দু’টি দেশীয় জাতের চেয়ে খাটো হওয়ায় ঝড়ে বা প্রবল বাতাসে ভেঙে পড়ার সম্ভাবনা নেই। জাত দু’টির গোড়া থেকে মোচার উচ্চতা ৬০ থেকে  ৮৫ সে.মি.। ফলে ভুট্টার অন্যান্য জাতের চেয়ে উদ্ভাবিত জাত দু’টি মাটি থেকে বেশি পরিমাণে পানি ও পুষ্টি সংগ্রহ করে মোচায় সরবরাহ করতে পারে।

এছাড়া জাত দু’টির ট্যাসেল খাড়া ও ছড়ানো। ফলে বৃষ্টির পানি ট্যাসেলে জমে থাকে না এবং বীজের গঠন চোকা। তাই এর র‌্যাকিসে বেশি সংখ্যক বীজ জন্মায়। জাত দু’টির রবি মৌসুমে বিঘা প্রতি গড় ফলন ৪৫ থেকে ৫০ মণ এবং খরিপ-১ মৌসুমে বিঘা প্রতি গড় ফলন ২৫ থেকে ৩৩ মণ । জাত দু’টি দেশব্যাপী চাষ করা যাবে। কৃষকরা এই ভুট্টা চাষ করে অধিক লাভবান হবে বলে জানিয়েছেন ড. বাকী। 

ড. আব্দুল্লাহেল বাকী বলেন,  বাজারে এখনও বীজ ছাড়া হয়নি, তবে অাপাতত কোন কৃষক চাইলে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অামরা বীজ সরবরাহ করব। পরবর্তীতে একটি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে কৃষক পর্যায়ে ছড়িয়ে দেওয়া হবে। তিনি অারও বলেন, পোল্ট্রি ফিডের জন্য বাংলাদেশ এখনও প্রতি বছর প্রচুর পরিমাণে ভুট্টা আমদানি করে। কৃষক পর্যায়ে উদ্ভাবিত জাত দু’টির চাষ বাড়ানো গেলে ভুট্টার আমদানি কমানো সম্ভব হবে।
 

Ads
Ads