ভালুকায় ব্যাটারির কারখানায় পুড়ছে সীসা, ধুঁকছে গ্রাম

  • ৭-Sep-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি :: 

ময়মনসিংহের ভালুকায় চীনা কারখানায় পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমতি ছাড়াই ব্যাটারি উৎপাদনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। দিনের পর দিন ব্যাটারি উৎপাদন করায় এলাকার পরিবেশ দূষিত হয়ে পড়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা পরিবেশ রক্ষায় একাদিক বার কারখানা বন্ধের দাবি করে প্রভাবশালীদের রোষানলে পড়েছে।

জানা যায়, পুরনো ব্যাটারী ও সীসা কারখানার অভ্যন্তরে খোলা জায়গায় গলানোর ফলে এর ঝাঁঝালো গন্ধ ও বিষাক্ত কালো ধোয়ায় স্থানীয় বাসিন্ধারা মাথা ঘোরা, শ্বাসকষ্ট, বমিসহ নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। পরিবেশ দূষনের ফলে, এলাকার চাঁন মিয়া, নুরুল হক, শামসুদ্দিন শামু, আবু সাঈদ, মোস্তফা কামালসহ আরো অনেকের ফসলী জমির ফসল, বড় বড় গাছপালা, পশুপাখি মারা গেছে। উপজেলার ১০নং হবিরবাড়ী ডুবালিয়াপাড়া ৫নং ওয়ার্ডের ফকিরবাড়ী জামে মসজিদ সংলগ্ন এলাকায়, মালয়েশিয়া প্রবাসী অজুফা আক্তার লীনা একটি প্রজেক্ট স্থাপন করে যা চীনা কোম্পানীকে ভাড়া দেওয়া হয়েছে। বিগত ১ বছরের বেশি সময় ধরে চীনা কারখানাটি নিয়ম বহির্ভূতভাবে ব্যাটারি উৎপাদন করে চলছে।

স্থানীয়রা জানায়, বাইরে থেকে ব্যাটারী সংগ্রহ করে কারখানার ভেতর সেগুলো পুড়ানো হয়। কারখানার আশপাশের বেশ কয়েকটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থাকায় এর বিষাক্ত কালো ধোয়ায় শিক্ষার্থীরা প্রায়ই অসুস্থ হয়ে যাচ্ছে। কারখানার পাশে মসজিদ থাকায় মুসলিল্লদের নামায আদায়ে অসুবিধা হচ্ছে।

এলাকাবাসী বেশ কয়েকবার কারখানা স্থাপনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে কিন্তু কোন কাজ হয়নি। স্থায়ী বাসিন্ধা নজরুল ইসলাম প্রধান ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, কারখানায় যারা কাজ করেন তাদের অধিকাংশই চীনা এবং তাদের কোন ওয়ার্কিং ভিশা নাই , পরিবেশের ছাড় পত্র, ফায়ার লাইসেন্স, চেয়ারম্যানের ট্রেট লাইসেন্স প্রয়োজনীয় কোন কাগজ পত্রই নাই। ব্যাটারী কারখানাটি বন্ধ কওে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য এলাকাবাসী উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট আকুল আবেদন জানিয়েছেন।

Ads
Ads