দুর্নীতি রোধে শিগগিরই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সব বিভাগে শুদ্ধি অভিযান

  • ১৬-জানুয়ারী-২০১৯ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

দুর্নীতি দূর করতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সব বিভাগে শিগগিরই শুদ্ধি অভিযান চালানো হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক স্বপন।

বুধবার (১৬ জানুয়ারি) সচিবালয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ‘আগামী ১০০ দিনের কর্মসূচি’ নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, অপরাধ যার যার নিজস্ব বিষয়। সরকার এতে কাউকে ছাড় দেবে না। বর্তমান সরকারের মেয়াদ মাত্র শুরু হলো। দ্রুতই স্বাস্থ্য বিভাগের সব ধরনের অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান চালানো হবে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রধানসহ শীর্ষ ৫ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুর্নীতি দূর করতে স্বাস্থ্য খাতে প্রশাসনিক সংস্কার কর্মসূচি নেয়া হবে কিনা- জানতে চাইলে ডা. জাহিদ মালেক বলেন, আমরা এ বিষয়ে জানি। কেউ অন্যায় করলে তার বিরুদ্ধে দেশের আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ নেয়া হবে। ইতোমধ্যে আমরা একজনকে সাসপেন্ড করেছি, আস্তে আস্তে এই শুদ্ধি অভিযান সব জায়গায় হবে ইনশাআল্লাহ। যাতে ভাল পরিবেশ আপনারা পান। অল্প সময়ের মধ্যে তা দেখতে পাবেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, মন্ত্রণালয়ের কাজ গতানুগতিক এগিয়ে চলছে। আরো গতিশীল ও পরিবর্তনের জন্য নতুন চিন্তা করতে হবে। তাহলে আমরা এগিয়ে যেতে পারব। সেই চিন্তা ভাবনা থেকে আমরা একশ দিনের কর্মসূচি ঠিক করেছি।

তিনি বলেন, আমরা যে একশ দিনের কর্মসূচি ঠিক করেছি, তারমধ্যে মহাজোটের নির্বাচনী অঙ্গীকার হিসেবে দেশের ৬৫ বছরোর্ধ্ব মানুষদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা। আমরা চেষ্টা করব, এই পাঁচ বছরে সেটা বাস্তবায়নের। বিভাগী শহরে হাসপাতাল ও নতুন নতুন কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন, গ্রামাঞ্চলে চিকিৎসকের সংখ্যা বৃদ্ধি করব। সব মিলিয়ে মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করে মহাজোটের অঙ্গীকার পুরোপুরি বাস্তবায়ন করাই হবে আমাদের একশ দিনের কর্মসূচির প্রথম কাজ।

ডা. জাহিদ মালেক বলেন, একশ দিনের কর্মসূচির মধ্যে দেশের প্রতিটি হাসপাতালে প্রদেয় সেবাসমূহের ইউজার চার্জ এর তালিকা প্রদর্শনের ব্যবস্থা করা, স্বাস্থ্যসেবার বিভিন্ন বিভাগের কার্যক্রম সম্পর্কে ব্যাপক প্রচার চালানো, স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণের ক্ষেত্রে সেবা গ্রহীতাগণ যেসব সমস্যার সম্মুখীন হবেন সেসব সমস্যা সমাধানে ব্যবস্থা, বিশেষ করে ওয়েবসাইটে একটি অভিযোগ কর্ণার চালু করা হবে। সব হাসপাতালের দৃশ্যমান সাইনবোর্ড টানানো, হাসপাতালগুলোতে পর্যাপ্ত অ্যাম্বুলেন্স ও উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের জন্য গাড়ির ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, দু্র্নীতির অভিযোগ ওঠায় সম্প্রতি স্বাস্থ্য অধিদফতরের মেডিকেল এডুকেশন শাখার হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা আবজাল হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। দুদক জানিয়েছে গুলশান, বনানী, বারিধারায় ২০টিসহ সারাদেশে প্লট-বাড়ি কেনায় সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। শুধু দেশেই নয়; সম্পদের পাহাড় গড়েছেন মালয়েশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রেও। দেশে-বিদেশে তার মোট সম্পদকে টাকায় হিসাব করতে হিমশিম খাচ্ছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কর্মকর্তারা। ২৪ বছরের চাকরি জীবনে ১৫ হাজার কোটি টাকার মতো সম্পদ অর্জন তার।

Ads
Ads