সাকিবকে ক্রিকেট নিয়ে থাকতে বললেন প্রধানমমন্ত্রী

  • ১১-Nov-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মাশরাফি বিন মুর্তজা ও সাকিব আল হাসানের অংশগ্রহণ নিয়ে গতকাল শনিবার দিনভর ছিল গুঞ্জন। তবে শনিবার রাতেই সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের কথা জানান বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব। এখনই নির্বাচন না করার কথা জানিয়েছেন তিন। তবে কেন এই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন, তা অবশ্য জানাননি সাকিব।

শনিবার রাতেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে যান সাকিব। সেখানে সাকিবকে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন না করে খেলায় মনোযোগ দিতে পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।

রোববার (১১ নভেম্বর) বেলা ১১টার দিকে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

কাদের বলেন, মাশরাফি ও সাকিব দুজনই আমার সঙ্গে গতকাল (শনিবার) মোবাইলে কথা বলেছে। আমি তাদের একটা প্লান দিয়েছি। এরপর সাকিব গণভবনে গিয়ে দেখা করেছে। আমাদের নেত্রী তার সঙ্গে কথা বলেছেন। নেত্রী তাকে জাতীয় স্বার্থ আপাতত ক্রিকেটে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাকে বলেছেন, সামনে বিশ্বকাপ, ক্রিকেটেই তোমার দরকার৷ দেশের স্বার্থে তুমি রাজনীতি থেকে বিরত থাকো।

মাশরাফির নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, মাশরাফি আগ থেকেই নির্বাচন করতে চাচ্ছে। এ বিষয়ে সে আমারও সময় চেয়েছে। তারা দু'জনই জতীয়ভাবে জনপ্রিয়। একটি দলের (আওয়ামী লীগ) স্বার্থে তো পুরোপুরি দেশের স্বার্থ বিলিয়ে দেওয়া যায় না।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের ক্রিকেটে এখন গ্যালাক্সি অব ট্যালেন্ট, অনেক তারকা। কিছুদিন আগে মাশরাফি, সাকিব ইনজুরির জন্য খেলতে পারেনি, তাই বলে কি আমরা জিততে পারিনি? তাছাড়া, মাশরাফিকে নড়াইলবাসী দীর্ঘ দিন থেকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে দেখতে চাইছে। আমাদের নেত্রী সাকিবকে ছেড়ে দিয়ে আবারও প্রমাণ করেছেন দলের থেকে দেশ বড়।

উল্লেখ্য, সাকিব-মাশরাফির নির্বাচনে অংশ নেওয়া নিয়ে গুঞ্জনটা শুরু হয়েছিল পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের এক বক্তব্যের পর। গত বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশন একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে ওই গুঞ্জনের ডালপালা আরও ছড়াতে থাকে।

/ই

Ads
Ads