সায়েন্স ল্যাবে পুলিশের ওপর 'হামলার' ঘটনায় মামলা

  • ১-Sep-২০১৯ ১২:০৩ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

রাজধানীর সায়েন্সল্যাব পুলিশ বক্সে পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেল নিক্ষেপের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। অজ্ঞাতদের আসামি করে নিউমার্কেট থানায় উপ-পরিদর্শক (এসআই) জহিরুল ইসলাম বাদী হয়ে বিস্ফোরক আইনে মামলাটি (নম্বর-১৩) দায়ের করেন।

রোববার (১ সেপ্টেম্বর) সকালে মামলার বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করে নিউমার্কেট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শের আলম বলেন, 'পুলিশকে লক্ষ্য করে হাতবোমা নিক্ষেপের ঘটনায় পুলিশের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় এসআই জহিরুল ইসলাম বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলাটি তদন্তের ভার দেওয়া হয়েছে থানার এসআই মো. আলমগীর হোসেন মজুমদারকে। মামলার আসামি করা হয়েছে অজ্ঞাতদের।' মামলার তদন্ত চলছে, তদন্ত শেষে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, শনিবার (৩১ আগস্ট) রাত ৯টার দিকে সায়েন্স ল্যাব মোড়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে হাতবোমা হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী তাজুল ইসলামের নিরাপত্তায় নিয়োজিত পুলিশের এএসআই শাহাবুদ্দিন ও ট্রাফিক কনস্টেবল আমিনুল ইসলাম আহত হন। এ ঘটনার দায় স্বীকার করে জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস ‘সাইট ইন্টেলিজেন্স’ বিবৃতি দেয়।

এর আগে, গুলিস্তান ও মালিবাগে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। গত ২৯ এপ্রিল গুলিস্তানে একটি ট্রাফিক বক্সের পাশে হাতে তৈরি বোমা বা আইইডি বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এতে ট্রাফিক পুলিশের দুই সদস্য ও একজন কমিউনিটি পুলিশ সদস্য আহত হন। এ ঘটনার ঠিক ২৮ দিন পর গত ২৬ মে রাত পৌনে ৯টার দিকে রাজধানীর মালিবাগের পলওয়েল ফিলিং স্টেশনের বিপরীতে ফ্লাইওভারের নিচে রাখা পুলিশের বিশেষ শাখার একটি পিক-আপ ভ্যানে বোমা বিস্ফোরণ ঘটে। এতেও ট্রাফিক পুলিশের এক সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) রাশেদা আক্তার, লাল মিয়া নামে একজন রিকশাচালক ও শাহনাজ শারমিন নামে এক পথচারী আহত হন।

এছাড়া ২৩ জুলাই রাতে রাজধানীর পল্টন ও খামাড়বাড়ি পুলিশ বক্সের কাছে ফেলে রাখা বোমা উদ্ধার করা হয়। এসব ঘটনার পর দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছিল জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)।

Ads
Ads