ঘুমন্ত স্বামীকে ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে হত্যার পর সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে গেলেন স্ত্রী

  • ২৪-Aug-২০১৯ ০৯:৪৯ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

রাজধানীর কাফরুলে শনিবার (২৪ আগস্ট) সকালে ঘুমন্ত স্বামীকে ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে তার স্ত্রী। এ ঘটনায় নিহতের মাও আহত হয়েছেন।

নিহতের নাম বাবুল আক্তার (৩৫)। তিনি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের টাইপিস্ট পদে চাকরি করতেন। পাবনা জেলার সাথিয়া উপজেলার আফতাব নগর গ্রামের রিফাজ উদ্দিনের ছেলে বাবুল। মিরপুর ১৩ নম্বর সেকশনের বি ব্লকের ৯ নং লাইনের ২২/২ নম্বর বাড়িতে পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকতেন।

নিহতের বাবা রিফাজ উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, তার ছেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের টাইপিস্ট পদে চাকরি করতেন। শনিবার ছুটির দিন হওয়ায় সকালে না উঠে ঘুমাচ্ছিলেন। সকাল ৯টার দিকে গভীর ঘুমে থাকা বাবুলের ওপর তাদের সন্তানের ক্রিকেট ব্যাট নিয়ে ঝাপিয়ে পড়েন তার স্ত্রী রিমা আক্তার। একের পর এক মাথায় আঘাত করতে থাকেন রিমা। এ ঘটনা দেখে বাবুলের বৃদ্ধা মা সোনেকা বেগম (৬০) ছেলেকে রক্ষা করতে ছুটে যান। কাছে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে রিমা তাকেও ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে আঘাত করতে থাকেন। দু’জনকে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে রেখে তায়িফ নামের তার পাঁচ বছরের সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে যান রিমা। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় বাবুল ও তার মা’কে আগারগাঁও নিউরো সাইন্স ইনিস্টিটিউটে যান তারা। পরে সেখান থেকে দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে বাবুলকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তার মা চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কী নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল সে বিষয়ে বাবুলের বাবা কিছু জানাতে পারেননি। 

সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া। তিনি বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহটি ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি কাফরুল থানাকে অভিহিত করা হয়েছে।

Ads
Ads