শেষ পর্যন্ত মানুষ স্বস্তিতে বাড়ি ফিরেছে: কাদের

  • ১২-Aug-২০১৯ ০২:৪৯ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এবার ঈদে শেষ পর্যন্ত মানুষ স্বস্তিতে বাড়ি ফিরেছে। শেষটা যার ভালো, সেটাই ভালো। আমি আশা করি, যারা ঘরে ফিরেছেন, ঈদের পরেও তারা কর্মস্থলে ফিরে আসবেন।

সোমবার (১২ আগস্ট) নিজ জেলা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বড় রাজাপুর গ্রামের নিজ বাড়ির মসজিদে ঈদুল আজহার নামাজ আদায় শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঈদের আগে কয়েকদিন নদীতে তীব্র স্রোত ও ভারী বৃষ্টির জন্য চলাচল কিছুটা বিঘ্নিত হয়েছে। পশুবাহী গাড়ির জন্যও চলাচলে কোথাও কোথাও সমস্যা হয়েছে। এছাড়া দেশের বেশিরভাগ রুটই ভালো ছিল। শুধু ঢাকা-টাঙ্গাইল রুটে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম পাশে নলকা পর্যন্ত সমস্যা হয়েছে। তবে সেটা ঈদের আগের দিন ছিল না।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে সাম্প্রদায়িক বিষবৃক্ষের মূল উৎপাটন করা হবে। একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র আমাদের সবার কাম্য। আজকের দিনে এটাই হোক আমাদের প্রার্থনা।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, এই মাস হলো শোকের মাস, অন্ধকারের মাস। এ মাস এলে অপশক্তিরা তৎপর হয়ে ওঠে। এরা কোনো দলের নয়, এরা গোটা জাতি ও বাংলাদেশের শত্রু। এদের বিষদাঁত ভেঙে দিতে হবে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে যে হারে ডেঙ্গুর প্রকোপ ছড়াচ্ছে, তাতে আমাদের সবাইকে নিজ নিজ বাসস্থান পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে।

এর আগে মন্ত্রী বাবা-মায়ের কবর জিয়ারত করেন। তিনি স্থানীয় মুসল্লি ও নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এবং নেতাকর্মীদের খোঁজ খবর নেন। দীর্ঘদিন পর ওবায়দুল কাদেরকে কাছে পেয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের অনেকেই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। মন্ত্রী তার অসুস্থতার সময় নেতাকর্মীদের আন্তরিক ভালোবাসা ও তার জন্য দোয়া করায় সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এ সময় নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াখালী-৪ (সদর ও সুবর্ণচর) আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খাঁন, বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আজম পাশা চৌধুরী রুমেল, স্বাধীনতা ব্যাংকার্স সদস্য ফখরুল ইসলাম রাহাতসহ আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Ads
Ads