কথা বেশি না বলে কাজে মন দিন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও খোকনকে কাদের

  • ২৬-Jul-২০১৯ ০২:৩৪ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকনকে কথা বেশি না বলে কাজে মনোনিবেশ করার পরামর্শ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, আমরা অনেক সময় এমন দায়িত্বহীন কথাবার্তা বলে থাকি, সবার উচিত নিজের দায়িত্ব থেকে কথা বলা। কাজে মনোযোগ দেওয়া উচিত। আমাদের সবার কথাবার্তায় সংযত হওয়া উচিত। সবার দায়িত্বশীল কথাবার্তা বলা উচিত। কথা বেশি না বলে সকলে কাজে মনোনিবেশ করবেন, এটাই আমি নেতাকর্মীকে আহ্বান জানাচ্ছি। এছাড়া তারা দু’জনেই যেটা বলেছেন, সেটা তাদের নিজেদের মতামত হতে পারে।

শুক্রবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডি রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডেঙ্গু নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন মেয়রের বক্তব্য প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্ক ছড়ান, তাদেরও বলবো, আসুন আমরা সবাই মিলে সামাজিকভাবে একটা লড়াই গড়ে তুলি। এই বিপজ্জনক মশা এবং এর কামড় যে মৃত্যুর কারণ হতে পারে, এটাকে সহজভাবে দেখার কোনো উপায় নেই। আমাদের দেশের জনগণ ডেঙ্গু নিয়ে উদ্বেগে আছে, আতঙ্কে আছে। সে জন্য আমাদের এটাকে উপেক্ষা করারও কোনো উপায় নেই।

তিনি বলেন, এটা এখন দেশীয় রোগ নয়, এখন দেখা যাচ্ছে- আন্তর্জাতিকভাবেও প্রকোপ বাড়ছে। চীন, ফিলিপাইন, শ্রীলঙ্কা, ভিয়েতনাম পর্যন্ত ডেঙ্গুর প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। আমাদের জনগণকে আমাদেরই বাঁচাতে হবে। জনগণকে বাঁচানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন। এমনকি প্রধানমন্ত্রীর অফিসও এ ব্যাপারে খুব সক্রিয়। প্রধানমন্ত্রীর অফিস থেকেও একটা মনিটরিং সেল গঠন করা হয়েছে এবং দুই সিটিকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ডেঙ্গু মোকাবিলায় সমন্বিতভাবে সংশ্লিষ্ট সব মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও সিটি করপোরেশন মিলে কাজ করতে হবে। যারা সংশ্লিষ্ট তাদের সবারই একটা দায়িত্ব রয়েছে। আমাদের দলেরও একটা দায়িত্ব রয়েছে। ডেঙ্গু আজকে যেভাবে ছড়িয়ে পড়ছে, এখানে দল দেখে এডিশ মশা কাউকে কামড় দেবে না। কাজেই সবাইকে এ বিষয়টি নিয়ে সচেতন ও সতর্ক হতে হবে।

কাদের বলেন, গুজব ছড়িয়ে গণপিটুনির যে ঘটনা, এটা যাতে আর না ঘটে, কেউ যাতে আইন হাতে তুলে না নেয়, সে ব্যাপারে আমরা আহ্বান জানিয়েছি। রাজনৈতিকভাবেও সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। আমাদের দলকে আমরা অন্তর্ভুক্ত করছি। সচেতনতামূলক ও সতর্কতামূলক সভা সমাবেশ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

অপর প্রশ্নের উত্তরে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, প্রিয়া সাহার বক্তব্য, গণপিটুনি এই বিষয়গুলোর মধ্যে কোনো যোগসূত্র আছে কি-না, এ বিষয়গুলো আমরা গভীরভাবে খতিয়ে দেখছি। কোনো যোগসূত্র থেকে থাকলে, তা অবশ্যই সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে মনে করা হবে। তখন যা যা করা দরকার সব প্রস্তুতি সরকারের আছে। প্রিয়া সাহার বিষয়টি নিয়ে বার বার কথা বলার প্রয়োজন নেই। এখন বন্যা ও ডেঙ্গু সমস্যা নিয়ে আমরা কাজ করছি। প্রতিদিনই মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে।

এ সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সবুর, উপ দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

Ads
Ads