গুজব প্রতিরোধে সবার আগে মাঠে নেমেছে ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন

  • ২৫-Jul-২০১৯ ০৫:৩৬ অপরাহ্ন
Ads

সিনিয়র প্রতিবেদক

সারাদেশ যখন গলাকাটা, ছেলেধরা গুজব আতংকে কাঁপছে তখনই  জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের  নিজ হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সেই অশুভ গুজব প্রতিরোধে মাঠে নামার ঘোষণা দিয়েছে। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের একমাত্র ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠন হিসাবে ছাত্রলীগের সকল নেতাকর্মীকে এই নৈতিক দায়িত্ব পালন করার নির্দেশনা দিয়েছেন কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। 

তাদের দুইজনের নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে ছাত্রলীগে সবার আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ছেড়ে গুজব প্রতিরোধে মাঠে নেমেছেন কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি রুহুল আমিন। রুহুল আমিন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে গাজীপুর সিটির ২১ নং ওয়ার্ডের জোলার পাড়বালিকা দাখিল মাদ্রাসায় গুজব প্রতিরোধে কি কি করা উচিত, কেন বা কারা কি উদ্দেশ্যে গুজব ছড়াচ্ছে, কিভাবে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা নিরাপদ থাকতে পারে এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। 

কোমলমতি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরাও মনোযোগ সহকারে গুজব প্রতিরোধে কি কি করণীয় তা শিখে নেন। এমনকি তারাও ছাত্রলীগের নেতার সাথে অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন। 

ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিনের সঙ্গে জোলার পাড় বালিকা দাখিল মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুস সালাম এবং মাদ্রাসা সুপার  হাছেন আলীও উপস্থিত ছিলেন। 

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি রুহুল আমিন এসব বিষয়ে বলেন, ছাত্রলীগ নিয়ে নানা নেতিবাচক খবর আপনারা দেখেন। কিন্তু শেখ হাসিনার ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতা রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং গোলাম রাব্বনীর নিদের্শে আমরা ইতিবাচক ধারায় ফিরে এসেছি। গুজব প্রতিরোধে শুধু ফেসবুকে বসে থাকলেই হবে না, কোমলমতি শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি সমাজের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সঙ্গে আমাদের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের কাজ করতে হবে। এটা করতে পারলেই কোনো ষড়যন্ত্রকারীরা আর গুজব ছড়িয়ে সফল হতে পারবে না। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি বিশেষ অনুরোধ করে রুহুল আমিন বলেন, আমরা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা গুজব প্রতিরোধে সচেতনা সৃষ্টি করতে পারবো। কিন্তু প্রশাসনের পক্ষ থেকে গুজব প্রচারকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। তাহলেই গুজবে কান দিয়ে কেউ কাউকে হত্যা করবে না। 

Ads
Ads