একমাত্র ডিজিটাল প্রযুক্তিই পারে দুর্নীতিকে জিরো টলারেন্সে নামিয়ে আনতে: জুনাইদ আহমেদ পলক

  • ২৪-Jul-২০১৯ ০৮:২৩ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

দুর্নীতি দমনে ডিজিটাল প্রযুক্তি ভূমিকা রাখছে। শুধু ডিজিটাল প্রযুক্তিই পারে দুর্নীতিকে জিরো টলারেন্সে নামিয়ে আনতে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

বুধবার (২৪ জুলাই) হোটেল ওয়েস্টিনে ভিয়েতনাম দূতাবাস ও বেটার বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন আয়োজিত  "ডিজিটাল বাংলাদেশ: ভিয়েতনাম ও বাংলাদেশের জন্য সুযোগ ও চ্যালেঞ্জ" বিষয়ক সেমিনারে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ডিজিটাল ভিলেজ নির্মাণে সকলের ইন্টারনেট সেবা নিশ্চিত করতে হবে। বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের অধীনে দেশের সকল জেলায় হাই-টেক পার্ক অথবা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

পলক বলেন, ভিয়েতনাম আইসিটি সেক্টরে বাংলাদেশ সরকার যে কোনো প্রকার সহযোগিতা দিতে সব সময় প্রস্তুত।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী  বাংলাদেশের আইসিটি সেক্টর সম্পর্কে বিভিন্ন পরিস্থিতি তুলে ধরে বলেন, ‘বিশ্বে ৪০টি দেশে এই মুহূর্তে আমরা আইসিটি খাত থেকে রফতানি করি। এখন দেশে আইসিটি প্রোডাক্টের ১০০ কোটি ডলারের বেশি লোকাল বাজার রয়েছে। আমরা আইসিটি খাতে টার্গেট নির্ধারণ করেছি। ২০২১ সালের মধ্যে ৫০০ কোটি ডলার রফতানি করব। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাক্রমে ২০২১ সাল নাগাদ আমাদের জিডিপিতে ৫ শতাংশ অবদান থাকবে আইসিটি শিল্প। পাশাপাশি ২০ লাখ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা আগামী পাঁচ বছরে করতে সক্ষম হব।

বাংলাদেশে ভিয়েতনামের রাষ্ট্রদূত ট্র্যান ভ্যান খোয়া বলেন, আমরা শুধু বাণিজ্য সহযোগী নই, এমনই বন্ধু যে সব ক্ষেত্রই বাংলাদেশকে জয়ী দেখতে চাই। ভিয়েতনাম ব্যবসায়ীদের জন্য আইসিটি সেক্টরে বাংলাদেশ একটি ভাল বিনিয়োগের স্থান।

ভিয়েতনামের সফটওয়্যার কোম্পানি এফপিটি এর চেয়ারম্যান হং নাম থিন বলেন, সাইবার নিরাপত্তা খুবই জরুরি। বড় কোনো দেশ থেকে নয় আমাদের নিজেদেরই সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার প্রযুক্তি বের করতে হবে।

বেটার বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাসুদ এ খান বলেন, বাংলাদেশ ১৭ কোটি মানুষের দেশ। এ বিপুল মানুষকে জনশক্তিতে পরিণত করতে হবে। বাংলাদেশ-ভিয়েতনাম দুই দেশ মিলে কাজের বিভিন্ন ক্ষেত্র বের করে একে অন্যকে সহযোগিতা করতে পারে।

সফটওয়্যার ও তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সেবা খাতের শীর্ষস্থানীয় বাণিজ্য সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এর সভাপতি হয়েছেন সৈয়দ আলমাস কবীর

সৈয়দ আলমাস কবির বলেন, বাংলাদেশ ও ভিয়েতনাম যদি সফটওয়্যার ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতে একে অন্যকে যুক্ত করে তাহলে নিজেদের ত্রুটিগুলো সংশোধন করে বিশ্বে শীর্ষ স্থান অর্জন করতে পারে। ভিয়েতনাম ও বাংলাদেশ দুই দেশই পোশাক শিল্পে শীর্ষ স্থানে রয়েছে। দুই দেশ এক হলে এই খাতে আরো উন্নয়ন সম্ভব।

Ads
Ads