মানুষের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করার জন্যই হত্যাকাণ্ড: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • ২৩-Jul-২০১৯ ০৩:২৫ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করতে ছেলেধরার গুজব ছড়িয়ে মানুষ হত্যা করা হচ্ছে- মন্তব্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, ‘যারাই এই ঘটনা ঘটাচ্ছেন তাদের শাস্তি পেতেই হবে।’

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) সচিবালয়ে সমসাময়িক ইস্যুতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন।

ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ছেলেধরা সন্দেহে মানুষকে পিটিয়ে হত্যা করা হচ্ছে। এর পেছনে কী উদ্দেশ্য আছে- জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘অস্থিতিশীল পরিস্থিতি, একটা কনফিউশন, মানুষের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করার জন্যই এগুলো।’

ছেলেধরা সন্দেহে গত কয়েক দিনে সারাদেশে ৬ জনকে হত্যা করা হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘এতে আহত হয়েছেন ১৫ জন। মামলা হয়েছে ৯টি, জিডি (সাধারণ ডায়েরি) হয়েছে ১৫টি ‘

পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় সারাদেশে ৮১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, একশজন যদি এ ঘটনা ঘটান তার শাস্তি কিন্তু একই রকম হবে। এ ধরনের হত্যাকাণ্ড ঘটালে অবশ্যই আমরা তাকে আনের মুখোমুখি করবো। আইন অনুযায়ী তাকে শাস্তি পেতেই হবে। ঘটনার সত্যতা না জেনে আইন নিজের হাতে তুলে না নিতে আহ্বান জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

‘যারা এ ধরনের ঘটনার সত্যতা বিচার-আচার না করে নিজেরা আইন হাতে তুলে নিচ্ছেন, তাদের কাছে সবিনয় অনুরোধ করবো আপনারা কোনোক্রমেই আইন হাতে তুলে নেবেন না। আইন প্রয়োগকারী সংস্থা আছে, যদি কারো প্রতি কোনো রকম সন্দেহ হয়, আইন প্রয়োগকারী সংস্থার হাতে সোপর্দ করেন। কিংবা তাদের ৯৯৯-এ জানান। কিংবা ওই এলাকার সবাইকে জানান।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ ধরনের ঘটনার যাতে পুনরাবৃত্তি না ঘটে সে জন্য মিডিয়ার মাধ্যমে আবেদন করুন যাতে এ ধরনের দুঃখজনক ঘটনা আর না ঘটে। এরই মধ্যে কয়েকজন এ ধরনের দুঃখজনক ঘটনার শিকার হয়েছেন। আমরা বসে নেই। সবগুলো ঘটনা সামনে এনে ভিডিওফুটেজ দেখে কারা কারা সম্পৃক্ত হয়েছিলেন, আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নিচ্ছি।

ইতোমধ্যে ৮১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, আমরা আরো গ্রেফতার করবো।

 

/কে 

Ads
Ads