লাইফ সাপোর্টে নয়, ডাকে সাড়া দিচ্ছেন এরশাদ: জিএম কাদের

  • ২-Jul-২০১৯ ০৪:১০ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

ঢাকার সম্মিলিত সামরিক (সিএমএইচ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত থাকলেও স্বজন ও চিকিৎসকদের ডাকে সাড়া দিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন তার ভাই পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

মঙ্গলবার (২ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

জিএম কাদের বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে স্বজন এবং চিকিৎসকদের ডাকে তিনি সাড়া দিচ্ছেন। আধো ঘুম-আধো জাগরণে সাড়া দিচ্ছেন এবং চোখ মেলছেন।

বেশ কিছুদিন ধরে শারীরিক নানা অসুস্থতা নিয়ে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইএচে) চিকিৎসাধীন আছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ। শুরুতে শারীরিক অবস্থা কিছুটা উন্নতি হলেও দুই দিন ধরে অবস্থার অবনতি হয়। তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে বলে সোমবার জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন।

রবিবার রাতে হঠাৎ গুজব ছড়িয়ে পড়ে তিনি আর বেঁচে নেই। পরে এই ধরণের গুঞ্জনে না ছড়ানোর আহ্বান জানানো হয় দল ও এরশাদের পরিবারের পক্ষ থেকে।

জি এম কাদের বলেন, ‘গতকালের মতো আজও পল্লীবন্ধুর শারীরিক অবস্থার কোনো পরিবর্তন হয়নি। সিএমএইচের চিকিৎসকরা এটাকে ইতিবাচক মনে করছেন।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে জাপার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, হুসেইন মুহম্মদকে লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয়নি। ফুসফুসে ইনফেকশনের কারণে তার শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। তাই চিকিৎসকরা পল্লীবন্ধুকে অক্সিজেন সাপোর্ট দিয়েছেন। চিকিৎসকরা এখনো অনেকগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছেন।

এসময় তিনি জাতীয় পার্টির ব্রিফিং এবং প্রয়োজনে আইএসপিআর-এর তথ্য ছাড়া কোনো বিভ্রান্তিকর তথ্যে বিভ্রান্ত না হতে গণমাধ্যম ও দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও সংসদে বিরোধীদলীয় উপনেতা মসিউর রহমান রাঙ্গা ফেসবুক অ্যাকাউন্টসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর ও মনগড়া পোস্ট দিতে নিষেধ করেন।

এ সময় দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, সুনীল শুভরায়, আলমগীর সিকদার লোটন, উপদেষ্টা সেলিম উদ্দিন, যুগ্ম মহাসচিব এমএম ইয়াসির, আমিনুল ইসলাম ঝন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক ইসাহাক ভূঁইয়া, আলহাজ আবদুর রাজ্জাক, যুগ্ম দপ্তর সম্পাদক এম এ রাজ্জাক খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Ads
Ads