অফিসে বসে শুধু চা খাইলে হবে? দেশপ্রেম থাকতে হবে: বিআরটিএকে হাইকোর্ট

  • ২৪-Jun-২০১৯ ০১:৪১ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের পরে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি হস্তক্ষেপের পরেও সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে ফিটনেসবিহীন গাড়ি ও লাইসেন্সহীন ড্রাইভারদের বিষয়ে সঠিক তথ্য চেয়েছিল হাইকোর্ট। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তথ্য  দিতে না পারায় বিআরটিএ’র প্রতি চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) পরিচালক শেখ মোহাম্মদ মাহবুব-ই রাব্বানীকে উদ্দেশ্যে আদালত বলেন, অফিসে বসে বসে শুধু কি চা খাইলে হবে? দেশপ্রেম থাকতে হবে।

দেশের সড়কে ফিটনেসবিহীন গাড়ি ও লাইসেন্সহীন ড্রাইভারদের বিষয়ে সঠিক তথ্য দিতে না পারায় সোমবার (২৪ জুন) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কেএম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এদিন বিআরটিএর এই পরিচালক আদালতকে জানান, মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও সারা দেশে লাইসেন্স নবায়ন করেনি ৪ লাখ ৫৮ হাজার ৩৬৯টি গাড়ি। ঢাকায় এ সংখ্যা ১ লাখ ৬৮ হাজার ৩০৮টি। কিন্তু তিনি ফিটনেসবিহীন গাড়ি ও লাইসেন্সহীন ড্রাইভারদের বিষয়ে সঠিক তথ্য দিতে পারেননি।

এসময় বিআরটিএর পরিচালকের উদ্দেশ্যে আদালত বলেন, অফিসে বসে বসে শুধু কি চা খাইলে হবে? দেশপ্রেম থাকতে হবে। বিআরটিএ কি করে? আমরা কেন ডাকবো, তাদের (বিআরটিএ) ডাকতে হবে কেন? তারা (বিদেশিরা) পারছে, আমরা পারছি না কেন?

আমরা সোনার বাংলা গড়তে চাই। কিন্তু কোনো পরিবর্তন লক্ষ্য করছি না,- যোগ করেন আদালত। এরপর ২৩ জুলাই এ বিষয়ে শুনানির দিন ধার্য করেন আদালত।

 

/কে 

Ads
Ads