প্রাণ-রাধুনীসহ ২২ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে বিএসটিআই

  • ১১-Jun-২০১৯ ০৮:১৩ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

নিম্নমানের পণ্য উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত থাকায় দ্বিতীয় ধাপে আরো ২২ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)। এর মধ্যে ২টি প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে। লাইসেন্স স্থগিত করা হয়েছে ১১টি প্রতিষ্ঠানের। এছাড়া ৮টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) বিএসটিআইয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, ওই সব পণ্যের মানোন্নয়ন করে আবার অনুমোদন না নেয়ার আগ পর্যন্ত উৎপাদনকারী, সরবরাহকারী, পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতাদের এসব পণ্য বিক্রি-বিতরণ, সংরক্ষণ ও বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপন প্রচার থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে সংশ্লিষ্ট উৎপাদনকারীদের বিক্রিত মালামাল বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের ২৪ (চব্বিশ) ঘণ্টার মধ্যে বাজার থেকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ভোক্তাদেরও ওই সব পণ্য ক্রয় না করার অনুরোধ করা হয়েছে।

লাইসেন্স বাতিল করা পণ্যগুলো হলো চট্টগ্রামের থ্রি স্টার ফ্লাওয়ার মিলের থ্রি স্টার হলুদের গুড়া এবং অ্যাগ্রো অর্গানিকের খুসবু ঘি। লাইসেন্স স্থগিত করা পণ্যগুলো হলো প্রাণ প্রিমিয়াম ঘি, রাধুনী ধনিয়ার গুড়া, রাধুনী জিরার গুড়া, কুলসন লাচ্ছা সেমাই, এ৭ ঘি, গ্রীণ মাউন্টেন বাটার অয়েল, মুসকান আয়োডিনযুক্ত লবণ, কনফিডেন্স আয়োডিনযুক্ত লবণ, মদিনা লাচ্ছা সেমাই, উট আয়োডিনযুক্ত লবণ ও নজরুল আয়োডিনযুক্ত লবণ।

বিএসটিআইয়ের প্রতিবেদনে বলা হয় খোলাবাজার থেকে ৪০৬টি পণ্যের নমুনা ক্রয় করে বিএসটিআইয়ের ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়। প্রথম ধাপে ৩১৩টি পরীক্ষার প্রতিবেদন পাওয়া গেছে, যার মধ্যে ৫২টি পণ্য পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়, যার মধ্যে ২৫টি প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিল, ১টি স্থগিত এবং ২৬টি প্রতিষ্ঠান পণ্যের মান উন্নয়নে সক্ষম হওয়ায় তাদের পুনরায় অনুমোদন দেয়া হয়।

 

/কে 

Ads
Ads