‘ভুয়া’ মুক্তিযোদ্ধা বলা যাবে না: হাইকোর্ট

  • ১৪-মে-২০১৯ ০২:৫৯ অপরাহ্ন
Ads

 

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। তাই এই মুক্তিযোদ্ধা শব্দের আগে ‘ভুয়া’ লেখা বা বলা যাবেনা বলে মত দিয়েছেন হাইকোর্ট। ভবিষ্যতে মুক্তিযোদ্ধা শব্দটির আগে কেউ ভুয়া’ ব্যবহার করলে প্রয়োজনে তাদেরকে আদালতে তলব করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৪ মে) বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিল সংক্রান্ত এক রিটের শুনানির সময় এই মত দেন।

এ সময় আদালত বলেছেন, ‘কোনো ব্যক্তি জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে ভুয়া সনদের মাধ্যমে নিজেকে মুক্তিযোদ্ধা দাবি করতে পারেন। কিন্তু তিনি তো মুক্তিযোদ্ধা নন। এ ধরণের ব্যক্তির কারণে ‘মুক্তিযোদ্ধা’ শব্দের আগে ‘ভুয়া’ শব্দটি ব্যবহার করলে সব মুক্তিযোদ্ধাদের অপমান করা হয়।’

আদালত বলেন, ‘মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। ভবিষ্যতে মুক্তিযোদ্ধাদের নামের আগে কেউ ভুয়া শব্দ ব্যবহার করলে তিনি প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী বা গণমাধ্যমের কর্মী যেই হোন প্রয়োজনে তাদেরকে তলব করা হবে।’

এ সময় আদালতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এবিএম আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার। তিনি বলেন, ‘মুক্তিযোদ্ধাদের যাচাই-বাছাই সংক্রান্ত মামলার শুনানিকালে আদালত বলেছেন, কোনো মুক্তিযোদ্ধাকে ভুয়া সম্বোধন করা যাবে না। যদি সরকারি-বেসরকারি কোনো প্রতিষ্ঠান ও গণমাধ্যম এটি করে তা হলে তাদের হাইকোর্টে তলব করা হবে।’

 

/কে 

Ads
Ads