লাশ আটকে ৬ লাখ টাকা আদায় করে আত্নসাত করলো ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক 

  • ১০-মে-২০১৯ ০৩:২৪ পূর্বাহ্ণ
Ads

সিনিয়র প্রতিবেদক

এবার একটি বেসরকারি ক্লিনিটে লাশ আটকে রেখে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের জন্য ৬ লাখ টাকা আদায় করলেও সেই টাকা নিজেই আত্নসাত করেছেন পাবনা সাঁথিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসিবুল খান সানা। 

গত ৯ মে পাবনার সাঁথিয়ার রুবিয়া ফয়েজ ক্লিনিকে এক গর্ভবতী নারী সন্তান প্রবসকালে মারা যান। এরপর সাঁথিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসিবুল খান সানা সেখানে গিয়ে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের কাছে টাকা দাবি করে। 

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানিয়েছে, প্রথমে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় সেখানে ভাঙচুর চালায় সাঁথিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসিবুল খান সানা তার অনুসারীদের নিয়ে। এরপর রাস্তায় নেমেও গাড়ি ভাঙচুর করে। পরে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ৬ লাখ টাকা নিয়ে ওই পরিবারকে একটি টাকাও দেননি। 

এ বিষয়ে সাঁথিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসিবুল খান সানাকে কয়েকবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শিবলী সাদিক এবং সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলামও ফোন ধরেননি। 

তবে বিষয়টি নিয়ে ব্যবস্থা নিতে পাবনা জেলা কমিটিকে নির্দেশনা দিয়েছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বরাবরের মতোই বলেন, ছাত্রলীগের নাম ভাঙিয়ে কেউ অপকর্ম করে বাঁচতে পারবে না। অভিযোগ প্রমাণ হওয়ার সাথে সাথেই সাঁথিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসিবুল খান সানার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক এবং আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এমনকি এই উপজেলা কমিটিও বিলুপ্ত করা হতে পারে। 

সাঁথিয়ার অন্য একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসিবুল খান সানা ইতিমধ্যে স্থানীয় সাংবাদিকদের টাকা দিয়ে ম্যানেজ করার চেষ্টা করেছেন। এমনকি পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককেও টাকার ভাগ দিয়েছেন বলে জানা গেছে। এমনকি এই টাকার ভাগ পেয়ে পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শিবলী সাদিক এবং সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলামও এখনো পর্যন্ত কোনো কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি বলে কেউ কেউ অভিযোগ করেছেন। 

Ads
Ads