দুর্বল হয়ে সাধারণ ঝড়ে পরিণত ‘ফণী’

  • ৪-মে-২০১৯ ১১:২৮ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র তীব্রতা ক্রমাগত কমেছে। ঝড়টি দুর্বল হয়ে সাধারণ ঝড়ে রুপ নিয়েছে। শুক্রবার বিকেলে এর বাতাসের গতিবেগ ছিল ১৬০ থেকে ১৮০ কিলোমিটার, রাত ১০টায় তা কমে হয় ১০০ থেকে ১২০ কিলোমিটার। ভোর ৩টায় গতিবেগ আরও কমে ৯০ থেকে ১০০ কিলোমিটারে নেমে আসে। আজ সকাল ৭টায় ঝড়টি আরও কম গতিবেগে এগুচ্ছে।

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, ঝড়ের মূল অংশটি বর্তমানে সাতক্ষীরা অতিক্রম করে বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চলে অবস্থান করছে। এটি আরও ছয় ঘণ্টা বাংলাদেশে অবস্থান করবে।

এদিকে আবহাওয়া অধিদফতর সূত্র জানায়, বাতাসের তীব্রতা এবং ধ্বংসক্ষমতা অনুযায়ী ঘূর্ণিঝড়কে চারটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয়। ঘূর্ণিঝড়ের ফলে সৃষ্ট বাতাসের গতিবেগ যদি ঘণ্টায় ৬২ থেকে ৮৮ কিলোমিটার হয়, তাকে ঘূর্ণিঝড় বা ট্রপিক্যাল সাইক্লোন বলা হয়। গতিবেগ যদি ৮৯ থেকে ১১৭ কিলোমিটার হয়, তখন তাকে তীব্র ঘূর্ণিঝড় বা প্রবল ঘূর্ণিঝড়’ বলা হয়। আর বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ১১৮ থেকে ২১৯ কিলোমিটার হয়, তখন সেটিকে হ্যারিকেন গতিসম্পন্ন ঘূর্ণিঝড় বা অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় বলা হয়। গতিবেগ ২২০ কিলোমিটার বা তার বেশি হলে তাকে ‘সুপার সাইক্লোন বলা হয়।

এ হিসেবে ঘূর্ণিঝড় ফণীর বর্তমান গতিবেগ আছে ১০০ কিলোমিটারের কম। যার অর্থ এটি সাধারণ ঘূর্ণিঝড়। তবে এই ঝড়ের প্রভাবে প্রায় সারাদেশেই বৃষ্টি হচ্ছে।

Ads
Ads