ভেনিজুয়েলায় ফের অভ্যুত্থান চেষ্টা, রুখতে তৎপর সরকার

  • ১-মে-২০১৯ ১০:৩৮ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: সীমানা পেরিয়ে ডেস্ক ::

ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে উৎখাত করতে সামরিক অভ্যুত্থানের চেষ্টা করছে সেনাবাহিনীর একাংশ। স্বঘোষিত প্রেসিডেন্ট হুয়ান গুইদো মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বলেছেন, মাদুরোকে উৎখাত পরিকল্পনার ‘শেষ ধাপ’ এখন চলমান। নিজের সমর্থকদেরও রাস্তার নেমে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। রাজধানী কারাকাসে গোলাগুলি চলছে। মাদুরোর এক মুখপাত্রও জানিয়েছেন, সেনাবাহিনীর একটি অংশের অভ্যুত্থান চেষ্টা রুখে দাঁড়িয়েছে সরকারের অনুগত বাহিনী। ইতিমধ্যে চলমান এ অভ্যুত্থান চেষ্টার নিন্দা ও উদ্বেগ জানিয়েছে তুরস্ক ও কিউবা। খবর রাশিয়া টাইমস, দ্য গার্ডিয়ান।

নির্বাচনি কারচুপির অভিযোগ আর অর্থনৈতিক সংকটের বিরুদ্ধে এবছরের শুরুতে ভেনেজুয়েলায় বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভের সুযোগে ২৩ জানুয়ারি নিজেকে অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করেন বিরোধী দলীয় নেতা হুয়ান গুইদো। প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর সরকারকে অবৈধ দাবি করে নিজেকে বৈধ অন্তবর্তী প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রসহ ৫০টিরও বেশি দেশ তাকে স্বীকৃতি দিলেও প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো সরকার অভিযোগ করে আসছে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তায় অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন গুইদো।

জানুয়ারিতে নিজেকে অন্তবর্তী প্রেসিডেন্ট ঘোষণার পর দেশটির সশস্ত্র বাহিনীকে তার প্রতি সমর্থনের আহ্বান জানান গুইদো। সে সময় সমর্থন দিলে সেনাবাহিনীর সদস্যদের দায়মুক্তির প্রস্তাব দিয়েও সাড়া পাননি তিনি। ভেনেজুয়েলার সশস্ত্র বাহিনী এখনও মাদুরো সরকারের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে মঙ্গলবার আকষ্মিক ঘোষণায় তিনি অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার চূড়ান্ত ধাপে প্রবেশের কথা জানান। বেশ কিছু সেনা সদস্য তার সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। রয়টার্স জানিয়েছে, বিমানঘাঁটিতে মাদুরোর সঙ্গে বিক্ষোভে যোগ দিয়েছেন অন্তত ৭০ জন সেনা। এছাড়া শতশত বেসামরিকও ছিলো সেখানে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে টিয়ারগ্যাম নিক্ষেপ করেছে মাদুরোর প্রতি অনুগত নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।

সরকারের দাবি, পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। প্রতিরক্ষামন্ত্রী ভ্লাদিমির পাদ্রিনো বলেন, ‘আমরা এই অভ্যুত্থানের দাবি প্রত্যাখ্যান করছি। এটি শুধু দেশে সহিংসতা ছড়ানোর জন্যই করা হচ্ছে।’ তার দাবি, সারাদেশেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

তথ্যমন্ত্রী জর্জ রড্রিগুয়েজ বলেছেন, ‘অভ্যুত্থান ঘটাতে সেনাবাহিনীর একটি ছোট দল সামরিক ঘাঁটিতে জড়ো হয়েছিল। মাদুরোর বাহিনী বর্তমানে বিশ্বাসঘাতক সেনা সদস্যদের ছোট একটি দলকে মোকাবিলা ও নিষ্ক্রিয় করার পথে’। টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় রড্রিগুয়েজ শক্ত হাতে বিদ্রোহ দমনের আভাস দিয়েছেন। বলেছেন ‘অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা রুখতে এবং শান্তির সুরক্ষায় বলিভিয়ার জাতীয় সশস্ত্র বাহিনীর পাশাপাশি সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় থাকার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। আমরা জিতব।’

মাদুরোর পাশে দাঁড়াতে সরকার সমর্থকদেরকে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে জড়ো হওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন ভেনেজুয়েলার সামজতান্ত্রিক দলের নেতা ডিয়োসদাদো চাবেলো। তার দাবি, মাদুরোকে উৎখাত করতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের সমর্থনপুষ্ট গুইদোর উদ্যোগে সেনা সদস্যদের ছোট একটি অংশ বিদ্রোহ করছে। ট্রাম্প মাদুরোকে সরকারকে অবৈধ বলে আখ্যা দিয়ে থাকেন। এ সমাজতান্ত্রিক নেতাকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করতে তার সরকারের বিরুদ্ধে বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞাও দিয়েছে তার প্রশাসন।

Ads
Ads