পবিত্র দায়িত্ব পালন করেছি মাত্র...

  • ১১-জানুয়ারী-২০১৯

বাংলাদেশের স্থপতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী, বাংলাদেশের তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জন্মগ্রহণ করেছিলেন শতাব্দী প্রাচীন এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে। তাঁর পাঁচ পুরুষের বংশপরিক্রমায় জানা যায়, পূর্বপুরুষ ইসলামধর্ম প্রচারের উপলক্ষেই এই দেশে আগমন ঘটেছিল। অর্থাৎ ইসলামের মূল্যবোধ এই দেশের মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়াই ছিল তাদের উদ্দেশ্য। সেই অলি-কামেলদের বংশধরের একজন আজকের জননন্দিত নেত্রী শেখ হাসিনা। যার রক্তে রয়েছে আল্লাহ এবং তাঁর রাসুলের সত্যিকার গভীরতম ভালোবাসা। যার ফলশ্রুতিতে ২০০৯ সালে জনগণের বিপুল ভোটে বাংলাদেশের শাসনভার গ্রহণের পর দেশের অর্থনৈতিক থেকে আপামর জনগণের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটতে থাকে। যা আজ সর্বজন স্বীকৃত মানবিক উন্নয়নের সঠিক ধারা। যার রক্তের মধ্যে রয়েছে আল্লাহ এবং রাসুলের প্রতি একনিষ্ঠ বিশ্বাস, তাই বংশের ধারাবহিকতায় মানবজীবনে ইসলামিক আদর্শ সর্বত্র ছড়িয়ে দিতে ইসলামের সত্যিকার মর্মবাণী, কল্যাণকর মানবিক চেতনায় লালন করে সুদূরপ্রসারী কর্মপন্থা গ্রহণ করেন। এদেশের মাদরাসা শিক্ষাব্যবস্থাকে ঢেলে সাজিয়ে হাজার বছরের এই শিক্ষা পদ্ধতি দেশ ও জাতির সামনে সম্মানিত একটি জায়গায় নিয়ে এসেছেন। প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মসজিদ এবং পাঠাগার নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছেন। বাংলাদেশের জন্ম থেকে আজ অবধি এই রকম ইসলামিক আদর্শকে সম্প্রসারণের কর্মপন্থা কোনো রাষ্ট্রনায়ক গ্রহণ করেননি।