হাওয়ায় হাওয়ায় ফাগুন

রবিবার , ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ৯:০১ অপরাহ্ন

:: তুহিন মজুমদার ::

মাঝে মাঝেই হু হু করে বয়ে যাচ্ছে দমকা হাওয়া। তাতে গাছের শাখা থেকে মলিন বিবর্ণ পাতা ঝরে পড়ছে মর্মর শব্দ তুলে।

পলাশের নিষ্পত্র শাখাগুলো ভরে উঠেছে অজস্র ফুলের রক্তিম আভায়। কোকিলের কণ্ঠে মন উচাটন করা কুহু কুহু সুর। বসন্ত এলো আবার ঋতুচক্রের পালাবদলের চিরায়ত নিয়মে। রবীন্দ্রনাথ বলেছিলেন, ‘আজি বসন্ত জাগ্রত দ্বারে।/তব অবগুণ্ঠিত কুণ্ঠিত জীবনে/ কোরো না বিড়ম্বিত তারে।’

প্রকৃতির অমোঘ নিয়মে বিদায় নিয়েছে শীত। ঋতুরাজ বসন্ত তার নিজস্ব উষ্ণতায় প্রাণ সঞ্চার করছে প্রকৃতিতে। শাখায় শাখায় নতুন পাতার উদ্গম, যেন নতুন হয়ে উঠছে পুরনো পৃথিবী। সে কারণেই যুগে যুগে বসন্ত বিপুল নন্দিত জীবনের জয়গানে।

চিরকাল বসন্তের খ্যাতি যৌবনের দূত হিসেবে। কুয়াশাময় শীতের নিষ্পেষণে মুমূর্ষু প্রকৃতিতে প্রাণের স্পন্দন জাগিয়ে তুলতেই বসন্তের আগমন। গাছে গাছে নবীন কিশলয়, শাখায় শাখায় শিমুল, পলাশ, অশোকসহ বহু বিচিত্র ফুলের বর্ণাঢ্য সমারোহ। আমগাছগুলো ভরা মুকুলে মুকুলে। বনপথে যেতে এখন ফাগুন হাওয়ায় ভেসে আসবে সেই সব চেনা বা অচেনা ফুলের সৌরভ। শীতে হতশ্রী প্রকৃতিকে এই লাবণ্য সুষমা ফিরিয়ে দেওয়ার জন্যই হয়তো বসন্তের খ্যাতি ঋতুরাজ বলে।

মানুষ প্রকৃতিসংলগ্ন বলেই নিসর্গের এই বিপুল পরিবর্তনের প্রভাব তার চিত্তেও বিশেষ দ্যোতনার সৃষ্টি করে, জাগিয়ে তোলে অন্তরের সুকুমার বৃত্তি। চিরন্তন যে ভালোবাসার অনুভূতি, তার প্রকাশে জাগে ব্যাকুলতা এই মিলনের, প্রণয়ের ঋতুতে। তরুণ প্রজন্ম আজ উৎসুক হবে প্রিয়জনের সান্নিধ্যে মনের বন্ধ দরজা মেলে ধরতে।
রাজধানীর কৃত্রিম পরিবেশে নিসর্গই যেখানে সীমিত, সেখানে বসন্তের বর্ণাঢ্য প্রকাশ চোখে দেখার আশা দুরাশারই নামান্তর। তবে প্রকৃতির বর্ণচ্ছটার অভাব ঘুচবে নগরবাসীর পোশাক-আশাকে।

চোখে পড়বে তারুণ্যের উচ্ছ্বাস-উদ্দীপনাও। অফিস-আদালত, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও আজ দেখা যাবে বাসন্তী রঙের ছটা। নারীদের পরনে বাসন্তী শাড়ি, খোঁপায় গাঁদার মালা। হাতে, গলায় তাজা ফুলের অলঙ্কার এসবই নারীর বসন্তসজ্জার অনুষঙ্গ হয়ে উঠেছে। পুরুষের পোশাকে প্রাধান্য পাবে অনুরূপ উজ্জ্বল রঙের পাঞ্জাবি-ফতুয়া। ঘুরে-ফিরে আড্ডা দিয়ে কাটবে সময়।

ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন স্থানে আজ বসন্ত উৎসব উদযাপনের আয়োজন রয়েছে। সকাল থেকেই নতুন প্রকৃতির মতোই উজ্জ্বল সাজে সজ্জিত হয়ে পথে নামবে পুরবাসী নর-নারী। খুলে যেতে চাইবে মনের বন্ধ দুয়ার। হৃদয়ের না বলা কথাটি প্রিয়তম কোনো জনের কাছে মধুর স্বরে বলতে আকুল হয়ে ওঠে চিত্ত।

হৃদয়ের এ কূল ও কূল দুকূল ভাসানো আবেগের প্লাবনে ঘুচে যায় দ্বিধা-সংকোচ। অনুভূতি পেয়ে যায় তার প্রকাশের ভাষা। বসন্ত তাই ভালোবাসার ঋতু বলেও সমাদর পেয়েছে বাঙালির কাছে।

 

অনলাইন/কে

WARNING: Assigned ad is expired! Extend the term or Delete it.
WARNING: Assigned ad is expired! Extend the term or Delete it.