শারীরিক প্রতিবন্ধি, তবুও বডিবিল্ডিং!

বৃহস্পতিবার , ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ১:০২ অপরাহ্ন

:: ভোরের পাতা অনলাইন ::

যিনি বডিবিল্ডিং বিষয়ে অনুশীলন করেন বা সংযুক্ত থাকেন, তিনি বডিবিল্ডার নামে পরিচিতি পেয়ে থাকেন। আজকে আমাদের এই শতাব্দীতে বডিবিল্ডিং নিয়ে আগ্রহী আছেন অনেকেই।একজন আরেকজনকে দেখে আমরা ফলো করে চলছি তার চালচরণ।

কখনও কি দেখেছেন শারীরিক প্রতিবন্ধির বডিবিল্ডিং? শুনে হয়তো অবাক হচ্ছেন, হবারই কথা।শারীরিক প্রতিবন্ধি আবার কিভাবে বডিবিল্ডার হতে পারে?

কিন্তু কঙ্গোতে কালেব মুটোম্বো নামের এক কিশোর শারীরিক প্রতিবন্ধি হবার সত্ত্বেও বডিবিল্ডিংয়ে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। জন্মেছেন বামন হয়ে। বয়স মাত্র ১৯ বছর। শারীরিক প্রতিবন্ধকতার জন্য অন্যদের মত দেহ গড়ে উঠেনি তার।শারীরিক খর্বতার কারণে উচ্চতা ৩ ফুট ৭ ইঞ্চি। ওজন মাত্র ৩৫ কেজি। শখ বড় হয়ে একজন নামকরা বডিবিল্ডার হবেন।

কঙ্গোতে জন্মেছিলেন কালেব মুটোম্বো। কিন্তু এখন তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার নাগরিক। সপ্তাহে পাঁচদিন এলাকার জিমনেশিয়ামে জিম করেন কালেব। তাছাড়া দৈনন্দিন কাজে সবসময় তিনি জিমের উপরই থাকেন। তিনি যদি একটি টেবিল অন্য স্থানের নিয়ে যান তাহলেও জিম করার স্টাইলে নিয়ে যান। তাতে তার কাজও হয় আবার শরীর চর্চাও হয়।

মাত্র ১৬ বছর বয়সে তিনি লোকাল বডিবিল্ডারদের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। গ্রামের প্রতিযোগিতায় তিনি দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয়েছেন কয়েকবার।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ছোটবেলা থেকেই শরীরচর্চা ভালোবাসি আমি। সে ভালোবাসা থেকেই নিয়মিত শরীরচর্চা চালিয়ে যাচ্ছি। শরীরচর্চা করায় আমার শক্তি বৃদ্ধি পাচ্ছে।

কালেব মুটোম্বো বলেন, আমি অন্যদেরও শরীরচর্চা করার জন্য উৎসাহ দিই। আমি মনে করি, প্রতিবন্ধকতাই আমার বডিবিল্ডিংয়ের মূল অনুপ্রেরণা। কে কি বললো বা কে কি করলো তাতে আমি মাথা ঘামাই না। নিজের প্রতি আমার দৃঢ় আত্মবিশ্বাস আছে। সব সময় আমি আমার সর্বোচ্চটা দেওয়ার চেষ্টা করি।

শারীরিক প্রতিবন্ধতা নিয়েও যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী কালেব। তিনি এখন কারো মুখাপেক্ষী নন। প্রতিদিন ভালো একটি দিনের আশা নিয়ে ঘুম থেকে উঠেন এবং সারাদিনের রুটিন মত কাজ চালিয়ে যান তিনি।

প্রাচীন গ্রিক ও মিশরে পাথর উত্তোলনে পারদর্শীতার মাধ্যমে বডিবিল্ডিংয়ে উৎপত্তি হয়েছে বলে ধারণা করা হয়। পরবর্তীতে বিভিন্ন সমাজে এর প্রচলন ও বিস্তার ঘটতে শুরু করে। ১৮৮০ থেকে ১৯৫৩ সালের মধ্যে পাশ্চাত্যে ভারোত্তোলনের ব্যাপক অনুশীলন শুরু হয়। ঊনবিংশ শতকের শেষদিকে আধুনিক বডিবিল্ডিং প্রতিযোগিতার প্রচলন ঘটে ইউরোপীয় শক্তিধর ব্যক্তিদের থিয়েটার ও সার্কাসে তাদের বাহুবল প্রদর্শন কলার মাধ্যমে।

গ্রীক পৌরাণিকিতে বর্ণিত সর্বকালের সেরা বীর হেরাক্লেস পেশীশক্তির প্রতীকিরূপ হয়ে আছেন। আধুনিক বডিবিল্ডারদের কাছে তিনি অনুপ্রেরণাকারী পূর্ব-পুরুষ হিসেবে পরিচিত। জার্মান বংশোদ্ভূত ইউজেন স্যান্ডোকে ‘আধুনিক বডিবিল্ডিংয়ের জনক’ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে।

 

ভোরের পাতা/ডিএইচ

WARNING: Assigned ad is expired! Extend the term or Delete it.
WARNING: Assigned ad is expired! Extend the term or Delete it.