যে কারণে ক্ষতিকর হিল জুতা !

শনিবার , ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ১:২৪ অপরাহ্ন

:: ভোরের পাতা অনলাইন ::

নিজের শরীরের দিকে আপনিই যদি খেয়াল না রাখেন, তাহলে কে রাখবে বলুন! হিল জুতা শরীরের পক্ষে মোটেই ভাল নয়। নানাবিধ জটিল রোগ হতে পারে এই অভ্যাস থেকে। এমন তো প্রায়ই হয়ে থাকে যে, আপনার বন্ধুর জন্মদিন। আর আপনি এমন একটি ড্রেস পরেছেন, যার সঙ্গে স্টেলাটো না পড়লে স্টাইলিং টা সম্পূর্ণই হবে না।

আজ থেকে এই অভ্যাস ত্যাগ করুন। স্টাইল যতই খারাপ হোক না কেন, হিল জুতার দিকে ফিরেও তাকাবেন না।

:: জেনে নিই ::

১. হিল জুতায় পায়ের ক্ষতি হয়: 

হিল জুতো পড়লে পায়ের পাতা জমির সঙ্গে সমান্তরাল থাকে না। পরিবর্তে অসমভাবে আপনার গোড়ালি উপরের দিকে উঠে থাকে, আর পায়ের পাতা ভেঙে গিয়ে নিচের দিকে চলে যায়। এমনভাবে যদি পায়ে পাতা দীর্ঘক্ষণ থাকে তাহলে পায়ের নিচের দিকে রক্ত প্রবাহ ঠিক মতো চলতে পারে না। ফলে পায়ে যন্ত্রণা, এমনকি মারাত্মক চোট লাগার আশঙ্কাও থাকে। শুধু তাই নয়। হিল জুতা পড়লে শরীরে সমগ্র ওজন গিয়ে পরে পায়ের আঙুলের উপর। ফলে আঙুলের হাড়ে চোট লাগার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

২. শিরদাঁড়া আঘাত পায়: 

চলাফেরা করার সময় পায়ের পাতা যদি জমির সঙ্গে সমান্তরাল অবস্থায় থাকে তাহলে শিরদাঁড়াও ইংরেজির “এস” এর মতো, অর্থাৎ স্বাভাবিক অবস্থায় থাকে। ফলে হাঁটার সময় তৈরি হওয়া নানা কম্পন বা শককে খুব সুন্দরভাবে শোষণ করে নিতে পারে স্পাইন। ফলে ভাটিব্রার উপর অতিরিক্ত চাপ পড়ে না। কিন্তু যখনই হিল জুতো পড়া হয়, তখনই শিরদাঁড়া সোজা হয়ে যায়, আর এমনটা হলেই দেখা দেয় পিঠে যন্ত্রণা এবং স্পাইনাল কর্ডে ইনজুরির মতো মারাত্মক সমস্যা।

৩. হাঁটুর নানা রোগ হয়:  

প্রতিদিন যারা হিল জুতা পরেন, তাদের হাঁটুর নানা রোগ হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। আসলে হিল জুতা পরে হাঁটার সময় হাঁটু স্বাভাবিকভাবে ভাঁজ হওয়ার সুযোগ পায় না। ফলে হাঁটুর জয়েন্টে ভীষণ রকম চাপ পড়ে। যে কারণে একটা সময়ের পরে গিয়ে দেখা দিতে শুরু করে নানান হাঁটুর রোগ। প্রসঙ্গত, দীর্ঘ দিন ধরে হিল জুতা পরলে হাঁটুর অস্টিওআর্থারাইটিসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বহু গুণে বেড়ে যায়।

 

ভোরের পাতা/এমএ

WARNING: Assigned ad is expired! Extend the term or Delete it.
WARNING: Assigned ad is expired! Extend the term or Delete it.