দেশে ৫০ হাজার ফ্রি ল্যান্সারের মধ্যে ২০ হাজার নারী : পলক

শুক্রবার , ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ৯:৫৩ অপরাহ্ন

:: নিজস্ব প্রতিবেদক ::

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে উদ্ভাবনী কৌশল ও পণ্যের জন্য সর্বোচ্চ এক কোটি টাকা পর্যন্ত ‘সিড মানি’ দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার।

শুক্রবার (১০ ফেব্রুয়ারি) ‘ন্যাশনাল হ্যাকাথন ফর উইমেন ২০১৭’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এ কথা জানান। ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারস মিলনায়তনে আয়োজিত প্রথমবারের মতো নারীদের নিয়ে এ অনুষ্ঠানে ৩৬ ঘণ্টার প্রতিযোগিতায় ৫০০ নারী নয়টি আলাদা বিষয়ে উদ্ভাবন ও সক্ষমতার পরীক্ষা দেবেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশের ‘ইনোভেটিভ আইডিয়া ও প্রোডাক্ট’ বিশ্বের দরবারে হাজির করার লক্ষ্যে সরকার কাজ শুরু করেছে। তিনি বলেন, ইনোভেশন ডিজাইন অ্যান্ড এন্টারপ্রেনারশিপ একাডেমির কাজ করে আমরা ২০২১ সাল নাগাদ এক হাজার উদ্ভাবনী কৌশল ও পণ্য বাংলাদেশ থেকে বিশ্বকে উপহার দিতে চাই। আগামী দুই বছরের মধ্যে ২০০টি বাছাই করা হবে বলে জানান তিনি। নির্বাচিত প্রতিটি পণ্যকে সিড মানি হিসেবে প্রথম চার মাসে এক কোটি টাকা পর্যন্ত দিতে নীতিমালার খসড়া তৈরি হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের পরই এ কার্যক্রম শুরু হবে।

প্রযুক্তি ও উদ্ভাবনের ক্ষেত্রে নারীদের নেতৃত্ব দেওয়ারও আহ্বান জানিয়ে পলক বলেন, ‘আগামী দুই বছরে দুই লাখ নারীকে প্রযুক্তি শিক্ষায় বিশেষ প্রশিক্ষণের পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। ইতোমধ্যে সারাদেশে ‘টেকসই নারী উন্নয়নে আইসিটি’ এ স্লোগানে বেসিক আইটি ট্রেনিং শুরু করেছে।’ প্রতিমন্ত্রী জানান, লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং প্রকল্পের আওতায় দেশে ৫০ হাজার ফ্রি ল্যান্সার তৈরি হয়েছে, যাদের মধ্যে ২০ হাজার নারী।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, বেসিসের সভাপতি মোস্তফা জব্বার, সাবেক সভাপতি শামীম আহসান, মাইক্রোসফট বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবির।

 

অনলাইন/কে

WARNING: Assigned ad is expired! Extend the term or Delete it.
WARNING: Assigned ad is expired! Extend the term or Delete it.