জাবিতে হল শাখা ছাত্রলীগের হামলায় আহত এক

বুধবার , ১১ জানুয়ারী ২০১৭, ৬:৪৬ অপরাহ্ন

:: জাবি প্রতিনিধি ::

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ম্যানেজমেন্ট বিভাগের কনসার্ট চলাকালে মুক্তমঞ্চে বসাকে কেন্দ্র করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল শাখা ছাত্রলীগের হামলায় মওলানা ভাসানী হলের এক ছাত্রলীগ কর্মী গুরুতর আহত হয়েছে।

আহত ছাত্রলীগ কর্মী জহিরুল ইসলাম পাবলিক হেলথ এন্ড ইনফরমেটিকস বিভাগের ৪১ তম আবর্তনের শিক্ষার্থী। তাকে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত ১১ টার দিকে বটতলায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সেলিম আল দীন মুক্তমঞ্চে “ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চতুর্থ ম্যানেজমেন্ট উইক কনসার্ট” চলাকালীন সময়ে আসন দখলকে কেন্দ্র করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের ৪২ তম আবর্তনের ছাত্রলীগ কর্মীদের সঙ্গে মওলানা ভাসানী হলের ৪৫ তম আবর্তনের ছাত্রলীগ কর্মীদের বাক-বিতন্ডা হয়। এ ঘটনার জেরে কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে বঙ্গবন্ধু হলের ছাত্রলীগ কর্মীরা মওলানা ভাসানী হলের ছাত্রলীগ কর্মীদের উপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ করে মওলানা ভাসানী হল। পরে মাওলানা ভাসানী হলের ছাত্রলীগ কর্মীরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের ছাত্রলীগ কর্মীদের মারধর করে।

বিষয়টি নিয়ে সমঝোতার জন্য মওলানা ভাসানী হলের ছাত্রলীগ কর্মীরা বঙ্গবন্ধু হলের শামীম মোল্লার সাথে যোগাযোগ করলে শামীম মোল্লা তাদের বটতলায় আসতে বলেন। মওলানা ভাসানী হল শাখা ছাত্রলীগ কর্মীরা বটতলায় একত্রিত হলে রাত ১১টার দিকে শামীম মোল্লার অনুসারীরা লোহার পাইপ, রড ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ভাসানী হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। পরে এক এসময় জহিরুল গুরুতর আহত হয়। আহত অবস্থায় জহিরুলকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক নাজমুল হক শাহীন তাকে এনাম মেডিকেলে স্থানান্তর করেন।

হামলায় অংশ নেওয়া সবাই বঙ্গবন্ধু হল ছাত্রলীগকর্মী শামীম মোল্লার অনুসারী এবং তারা এক রাউন্ড গুলি করে বলে অভিযোগ করেন ভাসানী হলের ছাত্রলীগকর্মীরা। হামলার ঘটনায় বিচার দাবিতে বুধবার (১১ জানুয়ারী) দুপুরে মওলানা ভাসানী হলের নেতা-কর্মীরা উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলামের সাথে সাক্ষাৎ করলে ঘটনা তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে দ্রুত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. জুয়েল রানা বলেন, বিষয়টি আমরা তদন্ত করব এবং দোষীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হবে।’

প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা বলেন, ‘মারামারির বিষয়ে আমরা একটি অভিযোগপত্র পেয়েছি। প্রক্টরিয়াল বডির জরুরি সভা শেষে প্রাথমিক একটি প্রতিবেদন প্রশাসনের কাছে জমা দেওয়া হয়েছে এবং এই বিষয়টি নিয়ে কাজ করছি।

 

অনলাইন/কে 

WARNING: Assigned ad is expired! Extend the term or Delete it.
WARNING: Assigned ad is expired! Extend the term or Delete it.